Beta

ক্রেতার দোরগোড়ায় পণ্য পৌঁছে দেবে বন্ধু ডটকম

০১ জুন ২০১৬, ১৮:২৩ | আপডেট: ০২ জুন ২০১৬, ১৮:৩২

ফিচার ডেস্ক

ঘরে বসে পণ্য পেতে এখন অনেকেই ভরসা রাখছেন ই-কমার্স সাইটগুলোর ওপর। আর সে কারণে দিন দিন এ ধরনের সাইটের সংখ্যা বাড়ছে।

বিশেষ করে ঈদের মৌসুমে বাজার ঘুরে কেনাকাটার ঝামেলা এড়াতে অনেকে ক্রেতাই এখন অনলাইনের মাধ্যমে পণ্য কিনে থাকেন।

২০১৩ সালে যাত্রা শুরু করা ই-কমার্স সাইট বন্ধু ডটকম (http://boondhu.com/)। দ্রুত ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করেছে এই সাইট।

২০১৪ সালে উদ্যোক্তাদের সংগঠন ‘চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব’ এর নবীন উদ্যেক্তা পুরস্কার জিতে নেয় বন্ধু ডটকম। এছাড়াও ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর সদস্য বন্ধু ডটকম।

বন্ধু ডটকম সাইটের উদ্যোক্তা মো. খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘আমি আর আমার স্ত্রী মিলে শুরু করি বন্ধু ডটকম। ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের ওপর লেখাপড়া ও আগ্রহ থেকেই ই-কমার্স সাইট শুরু করি আমরা। এরপর চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব গ্রুপের সঙ্গে সংযুক্ত হই। আমাদের সাইটের মাধ্যমে মূলত গ্যাজেট ও নারীদের পোশাক বেশি বিক্রি করি। এর সঙ্গে আমরা আরো নতুন কিছু পণ্য যোগ করার চেষ্টা করছি। এর মধ্যে রয়েছে সুগন্ধী।’

তিন বছরের এই যাত্রায় ক্রেতাদের কাছ থেকে কেমন সাড়া পেয়েছেন জানতে চাইলে খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘শুরুর দিকে ঢাকার বাইরে পণ্য ডেলিভারিতে বেশ সমস্যা হতো। ঢাকার বাইরের ক্রেতাদের কাছ থেকে আমরা ১০০ টাকা অগ্রিম নেই। তখন অনেকেই অগ্রিম টাকা দিতে চাইতেন না। এখন অবশ্য ক্রেতারা আস্থা রাখছেন, এ নিয়ে আর কোনো সমস্যা হয় না।’

আসন্ন রোজা ও ঈদ উপলক্ষে বন্ধু ডটকমের পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘ঈদ উপলক্ষে আমরা ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ে মেয়েদের পোশাক বিক্রি করব। এ ছাড়া রমজানের বিভিন্ন ফল যেমন : খেজুর কিনতে পারবেন ক্রেতারা আমাদের সাইট থেকে। আর এখন আমের মৌসুম চলছে। আমও কিনতে পারবেন ক্রেতারা।’

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘আমরা বর্তমানে পাঁচজন কাজ করছি সাইটটি নিয়ে। সামনে আমরা আরো নতুন নতুন পণ্য যোগ করতে চাই যাতে বন্ধু ডটকম থেকেই ক্রেতারা তাদের প্রয়োজনীয় সব পণ্য কিনতে পারেন।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement