Beta

বইমেলায় ছিল ক্রেতা-পাঠকের উপচে পড়া ভিড়

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৮

ফিচার ডেস্ক

অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২৩তম দিন আজ  শনিবার। আজ বইমেলার শেষ সাপ্তাহিক ছুটির দিন এবং শেষ শিশুপ্রহর। বইমেলা শুরু হয় সকাল ১১টার সময়। গতকাল শুক্রবার ছিল এবারের বইমেলার সর্বোচ্চ বইবিক্রির দিন। নির্দিষ্ট কোনো হিসাব না থাকলেও যারা দিনভর মেলায় ছিলেন, তারা বিষয়টি সহজেই অনুমান করতে পেরেছেন। আজও মেলা প্রাঙ্গণে ছিল উপচে পড়া ভিড়। যারা আসছেন বই কেনার জন্যই আসছেন। সকালে শিশুপ্রহরে শিশুকিশোরদের অভিভাবকদের সঙ্গে তাদের পছন্দের বইগুলো কিনতে দেখা গেছে। বিকেল ৩টা থেকে মেলায় বড়দের আগমন বাড়তে থাকে। সন্ধ্যার দিকে প্রতিটা স্টলের সামনে ক্রেতা-পাঠকের ভিড় লক্ষ করা গেছে।

নতুন বই

আজ নতুন বই এসেছে ১৮৬টি। গতকাল ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নতুন বই জমা পড়েছে তিন হাজার ৬৫০টি বই। গল্প-উপন্যাস-কবিতা-প্রবন্ধ-অনুবাদ-শিশুসাহিত্য সব ধরনের বই আছে এ তালিকায়। বাংলা একাডেমির হিসাবে, ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সাহিত্যের জনরা অনুযায়ী বই জমা পড়েছে: গল্প ৫৪৭টি, উপন্যাস ৫১৩টি, প্রবন্ধ ১৯০টি, কবিতা ১০৭৫টি, গবেষণা ৫৩টি, ছড়া ৮১টি, শিশুতোষ ৮৯টি, জীবনীগ্রন্থ ১১৭টি, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গ্রন্থ ৮৪টি, অনূদিত বই ২৮টি এবং বাকিগুলো অন্যান্য।

অনুষ্ঠান পর্ব

বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশের প্রকাশনা : অতীত ও বর্তমান শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মাহরুখ মহিউদ্দিন। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ফরিদ আহমেদ, মোহাম্মদ ইশতাক হোসেন এবং এ এফ এম হায়াতুল্লাহ। সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান। সন্ধ্যায় শুরু হয় কবিকণ্ঠে কবিতাপাঠ, কবিতা-আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

লেখক বলছি

অমর একুশে গ্রন্থমেলার এবারের সংযোজন ‘লেখক বলছি’ মঞ্চে আজ উপস্থিত ছিলেন কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন, কথাশিল্পী মঈনুল আহসান সাবের, কথাশিল্পী মেহেদী উল্লাহ, কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ ও কবি মিল্টন রহমান।

এ মঞ্চে বিকেল ৫টা থেকে ৭টা পর্যন্ত প্রতিদিন পাঁচজন করে লেখক উপস্থিত থাকেন। প্রত্যেকে ২০ মিনিট করে এই মেলায় প্রকাশিত বই নিয়ে কথা বলেন। সঞ্চালনায় থাকেন বাংলা একাডেমির কর্মকর্তারা।

অংশগ্রহণের পদ্ধতি

আগ্রহী লেখক বা বইয়ের প্রকাশক মেলার মূল তথ্যকেন্দ্রে এক কপি বই জমা দেবেন। বাংলা একাডেমির ভেতরে এই তথ্যকেন্দ্রে বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত বই জমা নেওয়া হয়। এর জন্য কোনো ফি লাগবে না। নির্বাচিত বইয়ের লেখকের সঙ্গে যোগাযোগ করে নির্ধারিত সময় জানিয়ে দেওয়া হবে। বাংলা একাডেমি থেকে মনোনীত বই বাছাই উপকমিটি এই বই বাছাই করবে। বইয়ের প্রকাশকাল হতে হবে মার্চ ২০১৮ থেকে ফেব্রুয়ারি ২০১৯। 

মোড়ক উন্মোচন

মেলার ২৩তম দিনে মোড়ক উন্মোচন মঞ্চে মোড়ক উন্মোচন করা হয় ৪০টি বইয়ের। গত ২১ দিনে প্রায় আট শতাধিক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয় বইমেলার এই মঞ্চে।

অংশগ্রহণের পদ্ধতি

আগ্রহী লেখক বা বইয়ের প্রকাশক মেলার মূল তথ্যকেন্দ্রে মোড়ক উন্মোচনের জন্য বই জমা দেবেন। এজন্য তাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি জমা দিতে হবে। বাংলা একাডেমির ভেতরে এই তথ্যকেন্দ্রে বিকেলে ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত বই জমা নেওয়া হয়।

আগামীকাল রবিবার, গ্রন্থমেলা শুরু হবে বিকেল ৩টায়, চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।

Advertisement