Beta

ছোট কাগজ ঐহিক বাংলাদেশের প্রারম্ভিক সংখ্যার মোড়ক উন্মোচন

০৫ মে ২০১৯, ১৮:০৭

ফিচার ডেস্ক

দীপনপুরে ঐহিক বাংলাদেশের প্রারম্ভিক সংখ্যা অণু থেকে উত্তরণের মোড়ক উন্মোচন এবং ছোট পত্রিকা ও গল্প বিষয়ক আলোচনা, সাথে গল্প পাঠ অনুষ্ঠিত হয়েছে গতকাল শনিবার।

একুশকে মনে রেখে ঐহিক বাংলাদেশ এই সংখ্যাটি অনধিক ২০০ শব্দে মূর্ত ও মুহূর্ত গল্প নিয়ে প্রকাশ পেয়েছে। আবহাওয়াজনিত সব রকম দুর্যোগ ও দুর্ভোগ উপেক্ষা করেই গুণীজনদের সমাগম ঘটে এই উদ্যোগে।

কলকাতায় ঐহিক যাত্রা শুরু করেছিল ৩০ বছর আগে। মূল ঐহিকের সাথে যুক্ত অথচ স্বাধীন প্লাটফর্মে ঐহিক বাংলাদেশ কাজ শুরু করে পাঁচ বছর আগে। শুরু থেকেই তারা সচেষ্ট ছিল সেতুবন্ধনে। সীমানাহীন সাহিত্যের এই উদ্যোগে সম্মাননা প্রদান, বই প্রকাশ, সাহিত্য আড্ডা ও অন্যান্য ছোট বড় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কাজ করছিল। এই প্রথম ঐহিক বাংলাদেশ আত্মপ্রকাশ করল প্রিন্ট ভার্সনে। গতকাল দীপনপুরে ছিল তেমনই এক নিবিড় করে নেওয়া সাহিত্য সন্ধ্যা। ঐহিক বাংলাদেশের পক্ষে স্বাগত বক্তব্য ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানান, পত্রিকাটির সহসম্পাদক সুমী সিকানদার।

সঞ্চালনায় ছিলেন নুরেন দূর্দানী। লিটল ম্যাগাজিন এক স্পর্ধার নাম, এ বিষয়কে কেন্দ্র করেই অনুষ্ঠানের শুরু এবং এ বিষয়ে মূল্যবান বক্তব্য দেন কবি ও অনুবাদক জুয়েল, অণুগল্পের ভবিষ্যৎ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন কথাসাহিত্যিক পারভেজ হোসেন। এর পর পরই এ অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বরেণ্য কথাসাহিত্যিক আনোয়রা সৈয়দ হক তাঁর সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।

বর্তমানের এই ওয়েবি দুনিয়ায় লিটল ম্যাগাজিন কি হুমকির মুখে? সাহিত্য অঙ্গনে অজস্র লিটল ম্যাগের ছড়াছড়ি। সাহিত্য চর্চা সে অর্থে কতটা হচ্ছে এবং নতুন করে এই পত্রিকার প্রয়োজনীয়তাই বা কতটুকু— এ বিষয়ে বক্তব্য দেন কবি, কথাসাহিত্যিক ঝর্না রহমান। এ বিষয়ে তথ্য সংবলিত বক্তব্য দেন শালুকের সম্পাদক ও কবি ওবায়েদ আকাশ। ফ্ল্যাশ ফিকশন, অণুগল্প, ড্রিবল, ড্রাবল, সাডেন ফিকশন কোনটা কী? সে বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন এ সময়ের গল্পকার, ক্রিটিক মুম রহমান। গল্পকার, অনুবাদক মোজাফফর হোসেন তাঁর প্রাঞ্জল বক্তব্য দিলেন ছোটগল্প, ছোটকাগজ বিষয়ে।

কবি জুয়েল মাজহার, কথাসাহিত্যিক পারভেজ হোসেন, কবি ও কথাসাহিত্যিক ঝর্না রহমান, কবি ওবায়েদ আকাশ, গল্পকার ও ক্রিটিক মুম রহমান, গল্পকার মোজাফফর হোসেন, কথাসাহিত্যিক নাসিমা আনিস, হাবিব আনিসুর রহমানের উপস্থিতিতে অণু থেকে উত্তরণের মোড়ক উন্মোচন করেন বিশেষ অতিথি কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক।

পরের অংশে ছিল পত্রিকায় প্রকাশিত অনুগল্প থেকে পাঠ। পাঠ করেন গল্পকার মুম রহমান, কথাসাহিত্যিক ঝর্না রহমান, অঞ্জন আচার্য, মনিকা চক্রবর্তী , কাজী লাবণ্য, সাইফ বরকত উল্লাহ ও মাহরীন ফেরদৌস।

ঐহিক বাংলাদেশের সম্পাদক মেঘ অদিতি জানান, প্রারম্ভিক সংখ্যা অণু থেকে উত্তরণের মোড়ক উন্মোচনের মাধ্যমে পত্রিকাটি তার সাহিত্যভিত্তিক কার্যক্রম চালিয়ে যাবে। একই সাথে সীমানাহীন সাহিত্যের সব রকম উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে। সাহিত্যকে কোনো কাঁটাতারে আটকে রাখা যায় না যেমন, তেমনি কথায় না কাজই হোক আমাদের পরিচয়। এগিয়ে যাক ঐহিক বাংলাদেশ। ভৌগোলিক ও রাজনৈতিক বিভাজন অগ্রাহ্য করে বাংলা ভাষা এক ও অখণ্ড সত্তায় এগিয়ে চলুক অন্য ভোরের সন্ধানে।

Advertisement