Beta

ভৈরবে সাংবাদিক ধ্রুবর মায়ের পরলোকগমন

০১ জুলাই ২০১৮, ২৩:৩০

ভৈরবে সাংবাদিক সত্যজিৎ দাস ধ্রুবর মা জ্যোৎস্না দাস পরলোকগমন করেছেন। ছবি : সংগৃহীত

কিশোরগঞ্জের ভৈরবের সাংবাদিক সত্যজিৎ দাস ধ্রুবর মা জ্যোৎস্না দাস পরলোকগমন করেছেন। আজ রোববার সকাল ৭টার দিকে শহরের উত্তর ভৈরবপুর এলাকার ভাড়া বাসায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘদিন অস্থিমজ্জার ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

জ্যোৎস্না দাস তাঁর স্বামী ডা. নলিনী রঞ্জন দাস, তিন ছেলে ও দুই মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। তাঁর ছোট ছেলে সত্যজিৎ দাস বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল বাংলাভিশন ও দৈনিক যায়যায় দিনের ভৈরব প্রতিনিধি এবং ভৈরব রফিকুল ইসলাম মহিলা অনার্স কলেজের সহকারী অধ্যাপক।

আজ দুপুরে জ্যোৎস্না দাসের গ্রামের বাড়ি ভৈরব উপজেলার শিমুলকান্দি ইউনিয়নের পাঁচঘরহাটি গ্রামের শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

এদিকে এই মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে স্বজনসহ পরিচিতজনরা ভৈরবপুরের বাসা এবং গ্রামের বাড়িতে ছুটে যান। শোকসন্তপ্ত পরিবারকে গভীর শোক ও সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।

সাংবাদিক সত্যজিৎ দাস ধ্রুবর মায়ের মৃত্যুতে ভৈরব টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আসাদুজ্জামান ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ আমিনসহ অ্যাসোসিয়েশনের সব সদস্য তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

এ ছাড়া শিশু-কিশোর সংগঠন কাকলি খেলাঘর আসরের সভাপতি অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম রিপন, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি ভৈরব উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. সুমন মোল্লা, দৈনিক পূর্বকণ্ঠ, সাপ্তাহিক দিনেরগান, সাপ্তাহিক জনপদ সংবাদ পরিবার  জ্যোৎস্না দাসের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনাসহ পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement