Beta

নেত্রকোনায় সিপিবির প্রার্থী জলির ওপর হামলা

১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১:০৭

আজ রোববার দুপুরে নেত্রকোনা জেলা শহরের সাতপাই বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নেত্রকোনা জেলা শাখার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন নেত্রকোনা-৪ আসনের সিপিবির প্রার্থী কমরেড জলি তালুকদার। ছবি : এনটিভি

নেত্রকোনা-৪ আসনের বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) প্রার্থী কমরেড জলি তালুকদারসহ তাঁর নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।

হামলার ঘটনা নিয়ে আজ রোববার দুপুর ২টায় নেত্রকোনা জেলা শহরের সাতপাই বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নেত্রকোনা জেলা শাখার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন জলি।

সংবাদ সম্মেলনে জলি তালুকদার বলেন, ‘আমি কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী হিসেবে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নির্বাচনী এলাকায় প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছিলাম। ইতোমধ্যে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা আমার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে। তারা আমার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় বাধাসহ নেতাকর্মীদের হুমকি-ধামকি ও নানা ধরনের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে আমি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঘান ইউনিয়নের মানশ্রী পালপাড়ায় নির্বাচনী গণসংযোগ করি। ওই সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায়। তারা আমার জামা-কাপড় পর্যন্ত ছিঁড়ে ফেলে। হামলায় জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থ প্রতিম সরকার, অনন্ত সরকার ও শাহীন আলমসহ সাতজন আহত হন। গুরুতর আহত পার্থ প্রতিম সরকার, অনন্ত সরকার ও শাহীন আলমকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের মোহনগঞ্জ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।’

সিপিবির এই প্রার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘হামলার বিষয়টি মোহনগঞ্জ ওসিকে জানানো হলেও প্রায় ২ ঘণ্টা পর পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ করতে গেলে ডিউটি অফিসার বলেন, স্যার বিজয় দিবসের প্রস্তুতি নিয়ে ব্যস্ত আছেন, এখন অভিযোগ নেওয়া যাবে না।’

এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হামলার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে নির্বাচন কমিশন ও সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান জলি তালুকদার।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিপিবির নেত্রকোনা শাখার সাধারণ সম্পাদক নলিনী কান্ত সরকার, সহসাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা যুব ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কাইয়ুম আহমেদ, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিকী নাদিম, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নেত্রকোনার সাধারণ সম্পাদক সজল সূত্রধর প্রমুখ।

Advertisement