Beta

নাশকতার মামলায় সিরাজগঞ্জ বিএনপির ১৫৫ নেতাকর্মীর জামিন

২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৯ | আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫০

শরীফুল ইসলাম ইন্না, সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সহসভাপতি মজিবুর রহমান লেবু ও নাজমুল হাসান রানা, যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল হাসান রঞ্জন, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা মোস্তফা জামান, যুগ্ম সম্পাদক হারুন অর রশিদ খান হাসান ও জেলা যুবদলের সভাপতি মির্জা আব্দুল জব্বার বাবু (ওপরে বাঁ থেকে)। ছবি : সংগৃহীত

সরকারি কাজে বাধাদান, পুলিশের ওপর হামলা ও পুলিশের পিকআপভ্যান ভাঙচুরের ঘটনায় করা মামলায় সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির ১৫৫ নেতাকর্মীকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ সোমবার দুপুরে হাইকোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ আব্দুল হাফিজ ও মহী উদ্দিন শামীমের দ্বৈত বেঞ্চ ওই জামিন দেন। জেলা বিএনপির সহসভাপতি নাজমুল হাসান রানা ও সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা মোস্তফা জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জামিন পাওয়া বিএনপি নেতাদের মধ্যে রয়েছেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মজিবুর রহমান লেবু, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও পৌর বিএনপির সভাপতি নাজমুল হাসান রানা, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল কাদের, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল হাসান রঞ্জন ও হারুন অর রশিদ খান হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা মোস্তফা জামান, সিরাজগঞ্জ পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান আনিস (তাঁতী আনিস), জেলা যুবদলের সভাপতি মির্জা আব্দুল জব্বার বাবু, সাধারণ সম্পাদক মুরাদুজ্জামান মুরাদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলিম, জেলা যুবদলের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি আল-আমিন খান ও সহসভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ।

মামলার বিবরণীতে উল্লেখ করা হয়, গত ১৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বিএনপির জেলা কার্যালয়ের সামনে পুলিশের একটি দল দায়িত্ব পালন করছিল। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫৭টি রাবার বুলেট ও আটটি কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত ও পুলিশভ্যান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে বিএনপির ১৭৩ নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা করে।

আজ এই মামলার ১৭৩ আসামির মধ্যে ১৫৫ জনকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। ১৫ জন এরই মধ্যে জামিন পেয়েছেন। অপর তিন বিএনপি কর্মী নাহিদ রায়হান দিগন্ত, ওমর ফারুক ও ফরিদুল ইসলাম কারাগারে আটক রয়েছেন।

Advertisement