বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ভৈরবে নানা প্রতিযোগিতা

১৫ মার্চ ২০১৯, ২৩:২২

শুক্রবার সকালে ভৈরব পৌরসভার মেয়র ও বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। ছবি : এনটিভি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে দিনব্যাপী কবিতা ও ছড়া আবৃত্তি, রচনা এবং চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্থানীয় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কয়েকশ শিক্ষার্থী প্রতিযোগী বিভিন্ন বিভাগে ভাগ হয়ে ওইসব প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।

ভৈরব প্রেসক্লাব মিলনায়তনে দৈনিক পূর্বকণ্ঠ পরিবার এই প্রতিযোগিতাটির আয়োজন করে। শুক্রবার সকালে ভৈরব পৌরসভার মেয়র ও বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ওই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।

এই সময় মেয়র তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমরা যখন ছাত্র ছিলাম, তখন ক্লাসের মেধাবী এবং শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার সঙ্গে জড়িতদের রাজনীতিতে টেনে আনা হতো। তাই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত আমরা কবিতা আবৃত্তি, সংগীত, অভিনয়, বিতর্ক ও বক্তব্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম। কিন্তু বর্তমানে আজ আর সেই দৃশ্যপট নেই। তাই রাজনীতি চর্চায়ও কোথায় যেনো একটা ছন্দপতন লক্ষ্য করা যায়।

অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ তাঁর বক্তব্যে দৈনিক পূর্বকণ্ঠ পরিবারের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে এমন একটি সুন্দর আয়োজনের জন্য, যা থেকে শিশু-কিশোরদের মনন ও মেধা বিকশিত হবে।

দৈনিক পূর্বকণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক-প্রকাশক সৈয়দ সোহেল সাশ্রুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন হাজী আসমত কলেজের বাংলা বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপিকা সাজেদা বাসেত, রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের প্রভাষক জহিরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পত্রিকাটির নির্বাহী সম্পাদক মো. আলাল উদ্দিন, প্রতিযোগিতা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব প্রভাষক মো. ইমরান হোসাইন, বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী ও শিক্ষক ফারহানা বেগম লিপি প্রমুখ।

পরে উল্লেখিত প্রতিযোগিতাগুলোর বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপিকা সাজেদা বাসেত, সাংবাদিক মোস্তাফিজ আমিন, প্রভাষক জহিরুল ইসলাম, শিক্ষিকা ফারহানা বেগম লিপি।

আগামী ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবসে এইসব প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।