Beta

সারা দেশে জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎবার্ষিকী পালিত

৩০ মে ২০১৯, ২৩:৪৭

অনলাইন ডেস্ক
বৃহস্পতিবার সকালে বগুড়ায় বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে জিয়াউর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। ছবি : এনটিভি

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাতবার্ষিকী বৃহস্পতিবার পালিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে সারা দেশে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে বিএনপি। জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

জিয়াউর রহমান ১৯৭৭ সালের ২১ এপ্রিল রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব নেন। এর পরের বছর ১ সেপ্টেম্বর আত্মপ্রকাশ করে বিএনপি। রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নেওয়ার পাঁচ বছরের মাথায় ১৯৮১ সালের ৩০ মার্চ চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে একদল বিপথগামী সেনাসদস্যের গুলিতে শাহাদত বরণ করেন জিয়াউর রহমান।

ঢাকার বাইরে থেকে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

আতিকুর রহমান সোহাগ, বগুড়া : সকালে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের নেতৃত্বে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জিয়াউর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বিএনপি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুসহ দলের নেতারা।

বগুড়া শহরের দত্তবাড়ি এলাকায় দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ করা হয়। ছবি : এনটিভি

পরে শহরের দত্তবাড়ি এলাকায় অ্যাজমা কেয়ার সেন্টারে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ও জেলা ড্যাবের সহযোগিতায় অধ্যাপক ডা. শাহ মো. শাহজাহান আলীর নেতৃত্বে দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ করা হয়।

পরে দুপুর ১২টার দিকে শহরের টিটু মিলনায়তনে দিনটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুহাম্মদ আবু তৈয়ব, খুলনা : বেলা ১১টার দিকে নগরীর কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ে মহানগর ও জেলা বিএনপির যৌথ উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট এস এম শফিকুল আলম মনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই। প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সিটি মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, মুবিজর রহমান, সৈয়দা নার্গিস আলী, আমীর এজাজ খান, অধ্যাপক ডা. গাজী আব্দুল হক প্রমুখ।

এ সময় একদলীয় ফ্যাসিবাদী শাসনের করাল গ্রাসে ১৬ কোটি মানুষের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র বিলীন হতে বসেছে বলে দাবি করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। তরুণ প্রজন্মকে ঐক্যবদ্ধ করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লড়াইয়ে খুলনা বিএনপি নেতাদের ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানান তিনি।

দেশে দুঃশাসন কায়েম হয়েছে উল্লেখ করে নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, ‘ইতিহাস প্রমাণ দেয়, এ ধরনের অপশাসনের অবসান স্বাভাবিকভাবে ঘটে না।’ প্রতিহিংসার রাজনীতির শিকার হয়ে দেড় বছর যাবৎ কারাবন্দি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পারলে গণতন্ত্রের মুক্তির সংগ্রাম সফল হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার খুলনায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ে জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : এনটিভি

আলোচনা শেষে জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন ওলামা দল নেতা মাওলানা শফিকুল ইসলাম।

এর আগে সকালে দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ ছাড়াও বিভিন্ন স্থানে কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়। দুপুরের পর থেকে ইফতারের আগ পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ড, থানা ও ইউনিটে চলে কোরআনখানি, আলোচনা সভা, দোয়া এবং দুঃস্থদের মাঝে ইফতার ও বস্ত্র বিতরণ।

এ বি এম ফজলুর রহমান, পাবনা : সকালে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে জাতীয় পতাকাসহ দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সামাদ খান মন্টুর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বন্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক খন্দকার হাবিবুর রহমান তোতা, সহসভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মাস্টার, কেন্দ্রীয় সদস্য জহুরুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার সকালে পাবনায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ে জিয়াউর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : এনটিভি

সভা শেষে জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে দলের নিহত নেতাকর্মীদের পরিবার ও ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন দলের নেতারা।

মো. মোস্তফা আবিদ, নীলফামারী : সকাল ১০টার দিকে জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত, দলীয় পতাকা উত্তোলন ও কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচি পালিত হয়।

বিকেলে বিএনপির পৌর মার্কেটস্থ কার্যালয়ের সামনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আলমগীর সরকারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান চৌধুরী, সদস্য সচিব জহুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক সোহেল পারভেজ, আনিছুর রহমান কোকো, অ্যাডভোকেট আবু মোহাম্মদ সোয়েম, রাহেদুল ইসলাম দোলন, অ্যাডভোকেট কাজী আখতারুজ্জামান জুয়েল, অ্যাডভোকেট আল মাসুদ চৌধুরী প্রমুখ। আলোচনা সভায় বিএনপি ছাড়াও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

শিহাব উদ্দিন বিপু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : সন্ধ্যায় শহরের টেংকেরপাড়স্থ পৌর কমিউনিটি সেন্টারে জেলা বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা বিএনপির সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট হারুন আল রশীদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ সরাইল আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাত্তার ভূঁইয়া, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন প্রমুখ।

সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের টেংকেরপাড়স্থ পৌর কমিউনিটি সেন্টারে জেলা বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : এনটিভি

অনুষ্ঠানে বক্তারা বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান। পরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা করে এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়।

ইফতার মাহফিলে জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement