Beta

ঈদের দিন আবহাওয়া কেমন থাকবে

১১ আগস্ট ২০১৯, ১২:০৭

অনলাইন ডেস্ক

ঈদের দিন সকালে সারা দেশে হালকা বৃষ্টি হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে এতে ঈদ-আনন্দে বড় ধরনের ব্যাঘাত ঘটবে না।

আগামীকাল সোমবার সারা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হবে ঈদুল আজহা। মুসলমানরা সকালে ঈদের নামাজ শেষে পশু কোরবানি দেবেন। সবার চেষ্টা থাকে কাছের ঈদগাহে গিয়ে নামাজ আদায় করার। তারপর ঘরে ফিরে কোরবানি দেন পশু।

এ সময় আবহাওয়া অনুকূলে না থাকলে নানা ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়। সে কারণে ঈদের দিনের আবহাওয়া কেমন থাকবে, বিশেষ করে বৃষ্টি হবে কি হবে না, গরম কেমন অনুভূত হবে—এ নিয়ে আগ্রহ আছে মানুষের।  

ঈদের আগের দিন আজ রোববার বেলা ১১টায় ঢাকার আগারগাঁওয়ের আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়াবিদ মো. আবদুল মান্নান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘খুব সহজভাবে যদি বলি, ঈদের সকালে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। সারা দেশেই এই বৃষ্টি হবে এমনটা নাও হতে পারে। হয়তো কোথাও কোথাও হবে। তবে সারা দেশেই আকাশ মেঘলা থাকবে।’

কোথাও কোথাও বৃষ্টির কারণে মানুষ সাময়িকভাবে অসুবিধার সম্মুখীন হতে পারেন বলেও উল্লেখ করেন এই আবহাওয়াবিদ। তিনি আরো বলেন, ‘সেটা খুব অল্প জায়গায় হতে পারে। তবে মানুষের চলাচলের জন্য এদিন আবহাওয়া তুলনামূলকভাবে উপযোগী থাকবে। বিশেষ করে যাঁরা নৌপথে যাত্রা করবেন, তাঁদের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। নদ-নদীগুলো স্বাভাবিক থাকবে। উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জন্য বিশেষ কোনো সতর্কবার্তা নেই।’

এ মুহূর্তে মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর কম সক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। এবং তা উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সেটি উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলেও আজকের আবহাওয়া কার্যালয় থেকে দেওয়া বার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে।

ঈদের দিনের তাপমাত্রা মানুষের সহনীয় পর্যায়েই থাকবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান। তিনি বলেন, এটি এলাকাভেদে ৩২ থেকে সর্বোচ্চ ৩৬ ডিগ্রি পর্যন্ত উঠতে পারে। ফলে একটু গরম অনুভূত হবে। এর কারণ, এখন শীতকাল নয়, গরমকাল। তার ওপর বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণটাও একটু বেশি। এ ছাড়া ঈদের কোরবানিসহ নানা কাজে মানুষ পরিশ্রম করে। এসব কারণেই একটু গরম অনুভূত হবে। সেটা খুব বেশি কিছু না।

তবে বিকেল থেকে আবহাওয়ার মোড় একটু ঘুরে যেতে পারে বলে মনে করছেন এই আবহাওয়াবিদ। আবদুল মান্নান বলেন, ‘তখন হয়তো বৃষ্টির প্রবণতা একটু বাড়বে। এ ছাড়া সারা দিনই আকাশে মেঘ-বৃষ্টির খেলা চলবে।’

Advertisement