Beta

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে নিখোঁজ বাবার লাশ মিলল বিষখালীতে

২১ আগস্ট ২০১৯, ১৩:৩২

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বিষখালী নদীতে নিখোঁজ লিটন সিকদারকে উদ্ধারের জন্য গত সোমবার অভিযান চালায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। ছবি : এনটিভি

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বিষখালী নদীতে গত রোববার বাবার সঙ্গে ইলিশ শিকার করতে গিয়ে ডুবে গিয়েছিল শিশু রামিন সিকদার। তাকে উদ্ধার করতে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন বাবা লিটন সিকদার। ওই সময় নদীতে নিখোঁজ হন লিটন। তবে স্থানীয় জেলেরা শিশু রামিনকে উদ্ধার করায় প্রাণে বেঁচে যায় সে।

এর পর থেকে অভিযান চালিয়েও মিলছিল না লিটন সিকদারের সন্ধান। অবশেষে তিন দিন পর আজ বুধবার নদীতে ভেসে ওঠে লিটন সিকদারের লাশ।

আজ সকাল ১০টার দিকে স্থানীয় জেলেরা রাজাপুর উপজেলার বিষখালী নদীর পালট চর এলাকায় ভাসমান অবস্থায় লিটনের লাশ উদ্ধার করেন।

লিটন সিকদার উপজেলার চাঁনপুরা গ্রামের আবদুল আজিজ সিকদারের ছেলে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সসহ স্থানীয়রা জানান, লিটন সিকদার তাঁর ছয় বছরের ছেলে রামিন সিকদারকে নিয়ে গত রোববার বিকেলে ইলিশ মাছ ধরার জন্য নৌকায় করে বিষখালী নদীতে যান। মাঝ নদীতে জাল টেনে ওঠানোর সময় রামিন নদীতে পড়ে যায়। এ সময় ছেলেকে উদ্ধারের জন্য লিটন নদীতে ঝাঁপ দেন। এ সময় অন্য জেলেরা নদী থেকে রামিনকে উদ্ধার করতে পারলেও লিটন নদীতে নিখোঁজ হন।

খবর পেয়ে গত সোমবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের একদল ডুবুরি নদীতে উদ্ধারকাজ চালায় বলে জানিয়েছিলেন নলছিটি ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন। তবে নদীতে জোয়ার থাকায় ওই সময় নিখোঁজ লিটনের সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি।

এদিকে তিন দিন ধরে লিটনের স্বজনরা নদীতীরে লিটনের খোঁজ করে আসছিলেন। পরে আজ সকালে বিষখালী নদীর পালট চর এলাকায় লিটনের লাশ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পান জেলেরা। স্বজনরা খবর পেয়ে সকাল ১০টার দিকে তাঁর লাশ বাড়িতে নিয়ে যান।

পরে আজ সকাল ১১টার দিকে চাঁনপুরা গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয় লিটনকে।

Advertisement