Beta

মৌলভীবাজারে সাইফুর রহমানের দশম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:২২

মৌলভীবাজারে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমানের দশম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। ছবি : এনটিভি

মৌলভীবাজারে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম. সাইফুর রহমানের দশম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এই উপলক্ষে মরহুমের গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার বাহারমর্দনে কোরআন খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন এবং শিরনি বিতরণ করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে এম সাইফুর রহমানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের সদস্যরা। এরপর মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, আবুল কাহের চৌধুরী শামীম ও নাসিম হোসাইনের নেতৃত্বে সিলেট বিভাগের দলীয় নেতাকর্মী এবং হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ জি কে গৌছের নেতৃত্বে হবিগঞ্জের দলীয় নেতাকর্মীরা মরহুমের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে কবর জিয়ারত ও দোয়ায় অংশ নেন সবাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মরহুম সাইফুর রহমানের বড় ছেলে সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা। এ ছাড়া সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার দলীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে সাইফুর রহমানের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন নিয়ে তাঁর নিজ বাড়িতে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ূনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান মিজানের পরিচালনায় স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম নেতা ও জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাস খান। বক্তব্য দেন প্রবীণ বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার দাশ, জেলা বিএনপির সহসভাপতি মৌলভী ওয়ালী সিদ্দিকী, আলহাজ এম মুকিত, আলহাজ মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, আশিক মোশারফ, আলহাজ আয়াছ আহমদ, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমদ, মৌলভীবাজার সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, রাজনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি জিতু মিয়া, কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, শ্রীমঙ্গল পৌর বিএনপিনেতা সরফরাজ আলী বাবুল, বিএনপি নেতা শফিকুর রহমান প্রমুখ।

স্মরণসভায় দর্শক সারিতে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি ও মরহুমের বড় ছেলে এম নাসের রহমান ও তাঁর স্ত্রী রেজিয়া নাসেরসহ তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাস খান বলেন, এম সাইফুর রহমান শুধু সিলেট বিভাগ নয় সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের রূপকার ও অর্থনীতির গতিসঞ্চারক। তাঁর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন এখনো চোখে পড়ার মতো। তিনি তলাবিহীন ঝুঁড়িখ্যাত বাংলাদেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী  করেছেন। তাঁর মতো দক্ষ অর্থনীতিবিদ বাংলাদেশে আর সৃষ্টি হয়নি। দেশের যত বড় বড় উন্নয়ন তার সবই পরিকল্পনা ছিল এম সাইফুর রহমানের। কেউ স্বীকার করুক আর নাই করুক তাঁর পরিকল্পনাই এখন বাস্তবায়িত হচ্ছে। তিনি যদি আজ বেঁচে থাকতেন আর তাঁর মতো যোগ্য নেতৃত্ব যদি থাকত তাহলে আজকে গণতন্ত্রের এমন অপমৃত্যু হতো না। আর দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অন্যায়ভাবে কারাবন্দিও থাকতেন না। আজকে গণতন্ত্র কারাবন্দি। কারণ গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়াকে যদি মুক্ত করতে না পারি তা হলে এ দেশে গণতন্ত্র পুনরায় প্রতিষ্ঠিত হবে না। তাই আজকে এম সাইফুর রহমানের দশম মৃত্যুবার্ষিকীতে আহ্বান রাখব বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার।

এদিকে এম সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মৌলভীবাজারের জেলা ও উপজেলার মসজিদগুলোতে তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এম সাইফুর রহমান বাণিজ্যমন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী ও একাধিকবার সফলতার সঙ্গে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী হিসেবে ১২বার বাজেট পেশ করেছেন তিনি। ২০০৯ সালে ৫ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ি বাহারমর্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

Advertisement