Beta

ফেসবুকে ‘সরকারবিরোধী স্ট্যাটাস’, ঢাবি ছাত্র আটক

০৯ আগস্ট ২০১৮, ২৩:১৭

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরকার, আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু পরিবারকে নিয়ে সমালোচনামূলক স্টাটাস দেওয়ার অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রকে প্রক্টরের হাতে তুলে দেয় ছাত্রলীগ। ওই ছাত্রকে পরে পুলিশে দেন প্রক্টর।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘সরকারবিরোধী স্ট্যাটাস দেওয়ায় ওই ছাত্রকে আটক করা হয়েছে।’  

আজ বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থীর নাম রাফসান আহমেদ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

ওই ছাত্রকে প্রক্টর অফিসে দেওয়ার আগে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। তবে এ অভিযোগ সত্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এম আর মুকুল ইসলাম।  

জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রাফসান সমালোচনামূলক স্ট্যাটাস দেন।  এ জন্য শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাকে ধরে প্রক্টর অফিসে দিয়ে আসে। পরে প্রক্টর রাফসানকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

এ বিষয়ে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মুকুল ইসলাম বলেন, ‘তাকে কোনো ধরনের মারধর করা হয়নি। আমরা তাঁকে ডেকে নিয়ে প্রক্টর অফিসে দিয়ে এসেছি। এর বাইরে কিছুই ঘটেনি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘ফেসবুকে সরকারবিরোধী স্ট্যাটাস দেওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।’

নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) সাহেব আলী বলেন, ‘রাফসান নামক বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম আমার হাতে তুলে দেয়। পরে আমি তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করি। বর্তমানে সে শাহবাগ থানায় আছে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement