Beta

‘দহন’ ছবির গল্পই হিরো : মম

০৮ জুলাই ২০১৮, ১৪:৫৫ | আপডেট: ০৮ জুলাই ২০১৮, ১৫:১৯

‘দহন’ ছবির শুটিংয়ের ফাঁকে মম। ছবি : মোহাম্মদ ইব্রাহিম

‘বেশি কিছু বলতে চাই না। শুধু কাজ করতে চাই। আমি চাই, আমার কাজ যেন কথা বলে।’ সাক্ষাৎকার দেওয়ার একপর্যায়ে এ কথাগুলো বলেন জাকিয়া বারী মম। সম্প্রতি রায়হান রাফি পরিচালিত ‘দহন’ ছবির শুটিং শেষ করছেন তিনি। ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতা ও অন্যান্য অনেক বিষয় নিয়ে এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

এনটিভি অনলাইন : ‘দহন’ ছবির শুটিং শেষ। কেমন ছিল কাজের অভিজ্ঞতা?

জাকিয়া বারী মম : শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা এককথায় চমৎকার। ডিরেক্টর, কো-আর্টিস্ট ও ছবির পুরো টিমের সঙ্গে কাজ করে ভীষণ ভালো লেগেছে আমার। কাজের ক্ষেত্রে একের প্রতি অন্যের শ্রদ্ধা থাকা উচিত। যেটা আমি এই ছবিতে পেয়েছি।

এনটিভি অনলাইন : ছবিতে আপনার চরিত্রের নাম ‘মায়া’। চরিত্রটি সম্পর্কে বলুন?

জাকিয়া বারী মম : জীবনে অনেক চরিত্রে অভিনয় করেছি। প্রতিটি চরিত্র আলাদা এবং আলাদা হওয়াও উচিত। এটুকু বলতে পারি, মায়া চরিত্রের লাইন আলাদা। মায়া চরিত্র প্লে করতে ভালোই লেগেছে।

এনটিভি অনলাইন : ‘দহন’ ছবি দর্শক কেন দেখবে?

জাকিয়া বারী মম : ‘দহন’ ছবির গল্পই হিরো। পুরো গল্প সহজ সরল। সহজ সরল জিনিস মানুষ দেখবে, এটাই বড় চ্যালেঞ্জ। এ ছাড়া চ্যালেঞ্জের কিছু নেই। ছবির সব চরিত্র শক্তিশালী।

এনটিভি অনলাইন : এবার গেল ঈদের নাটক নিয়ে কথা বলি। আপনার অভিনীত বেশ কিছু নাটক এবার আলোচনায়। এর মধ্যে এনটিভিতে প্রচারিত শিহাব শাহীন পরিচালিত ‘শেষ পর্যন্ত’ টেলিফিল্মটি দর্শক ভালোভাবে গ্রহণ করেছেন। টেলিফিল্মের গল্পের মতো ভালোবাসা সত্য হলে সেটা কি টিকে যায়? আপনার অভিমত কী?

জাকিয়া বারী মম : অনেক মানুষ চাইলেও ভালোবাসার জন্য সবকিছু করতে পারে না। কেউ কেউ বাস্তবতাকে প্রাধান্য দেয়। সবার ভালোবাসার গল্প আলাদা। অবস্থা বুঝেই আসলে ব্যবস্থা নিতে হয়। তবে এটা ঠিক, ভালোবাসা যদি সত্য হয়, সেটা কোনো না কোনোভাবে প্রমাণিত হবে।

এনটিভি অনলাইন : মাহমুদুর রহমান হিমি পরিচালিত ‘আনমনে তুমি’ নাটকটিতে আপনার ভিন্ন রকম উপস্থাপন দর্শক পছন্দ করেছেন। নাটকটি সম্পর্কে কিছু বলুন।

জাকিয়া বারী মম : আমি যখন শুটিং করি, তখন অনেক সময় বুঝতে পারি না কী করছি। পরে যখন দেখেছি, নাটকটি তখন ভালো লেগেছে। নাটকটি দেখে অনেকে মন খারাপ করে স্ট্যাটাস দিয়েছিল। সবাই আসলে ইমোশনাল জার্নির সঙ্গে এক হয়ে গিয়েছিল। নাটকের গল্পে আমি ও অপূর্ব অসুস্থ ছিলাম। বাস্তবে আমি অসুস্থ না, অপূর্বও অসুস্থ না। অসুস্থ হলে রোগী কেমন হয়, সেই তথ্যগুলো আমরা শুটিংয়ের আগে চিকিৎসকের কাছ থেকে নিয়েছিলাম। দুটো চরিত্রের বাঁচতে চাওয়ার ইচ্ছা থাকে। এই একটা জায়গায় সবার সঙ্গে মিলে যায়। কারণ সব মানুষ বাঁচতে চায়। সব মানুষ ভালো থাকতে চায়। সুস্থ মানুষও বাঁচতে চায়। অসুস্থ মানুষও সুস্থ হয়ে বাঁচতে চায়। আমরা জীবনের গল্প বলতে চেয়েছি। সেই জীবনের গল্প দর্শকের ভালো লেগেছে, এটাই আমাদের ভালোলাগা।

এনটিভি অনলাইন : শেষ প্রশ্ন। অরিন্দম শীল পরিচালিত টলিউডের ‘বালিঘর’ ছবির শুটিং কবে শুরু করছেন?

জাকিয়া বারী মম : আগামী সেপ্টেম্বর থেকে ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ছবির প্রথম ভাগের শুটিং বাংলাদেশে হবে। কক্সবাজারে হওয়ার কথা রয়েছে। ছবিতে আমার চরিত্রের নাম বন্দনা। এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না এখন। শুধু কাজ করতে চাই। আমি চাই আমার কাজ যেন কথা বলে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement