Beta

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের পঞ্চম আসর

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৫২

ফিচার ডেস্ক

পঞ্চমবারের মতো আয়োজিত হতে যাচ্ছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। আগামী ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) রামচন্দ্রপুরের স্থায়ী ক্যাম্পাসে দুদিনব্যাপী আয়োজিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের সর্বপ্রথম মুঠোফোনকেন্দ্রিক চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতা ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’ (DIMFF)। উৎসবমুখর এই আয়োজন উন্মুক্ত থাকছে সবার জন্য।

প্রতিযোগিতার এ আসরে ৩৪টি দেশ থেকে ‘Competition’, ‘One minute film’ ও ‘Screening’—এ তিনটি ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ৯৬টি চলচ্চিত্র জমা হয়েছে। DIMFF-এর পঞ্চম আসরে বিচারকাজ সম্পন্ন করেছেন জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রসূন রহমান, পেশাদার সিনেমাটোগ্রাফার রাশেদ জামান এবং চলচ্চিত্রবিষয়ক লেখক বিধান রিবেরু।

বিচারকমণ্ডলীর নির্বাচনে Competition বিভাগে জমাকৃত ২৮টি চলচ্চিত্র থেকে ১০টি, One Minute Film বিভাগের তিনটি চলচ্চিত্র থেকে দুটি এবং Screening বিভাগে জমাকৃত ৬৫টি চলচ্চিত্র থেকে ২৬টিসহ সর্বমোট ৩৮টি চলচ্চিত্র চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হয়েছে। নির্বাচিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্য থেকে Competition বিভাগের সেরা চলচ্চিত্র নির্মাতাদের জন্য থাকছে ‘CinemaScope Best Film’ অ্যাওয়ার্ড এবং One Minute Film বিভাগের সেরা চলচ্চিত্র নির্মাতাদের জন্য থাকছে ‘ULAB Young Film Maker’ অ্যাওয়ার্ড। সেইসঙ্গে নির্বাচিত নির্মাতাদের জন্য থাকছে সনদ এবং উপহার।       

প্রসূন রহমান চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করেন ‘সুতপার ঠিকানা’ নামক চলচ্চিত্রটির মাধ্যমে। তিনি শুধু একজন চলচ্চিত্র নির্মাতাই নন, একই সঙ্গে তিনি লেখালেখিও করেন। প্রতিযোগিতার আরেক বিচারক রাশেদ জামান সিনেমাটোগ্রাফিকে পেশা হিসেবে বেছে নিলেও তিনি তাঁর শিক্ষাজীবন শুরু করেছিলেন স্থাপত্যশিল্পের আচ্ছাদনে। DIMFF-এর সম্মানিত বিচারক বিধান রিবেরু বর্তমানে চলচ্চিত্রকেন্দ্রিক লেখালেখিতে মগ্ন আছেন। তাঁর লেখা উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রবিষয়ক বইগুলো হলো ‘চলচ্চিত্র পাঠ সহায়িকা’ (২০১১), ‘চলচ্চিত্র বিচার’ (২০১৩), ‘বাংলাদেশে/র চলচ্চিত্র’ (২০১৭), ‘চলচ্চিত্র বোধিনী’ (২০১৯) প্রভৃতি।

Advertisement