Beta

তুমুল দৃশ্যটি ছেঁটে দিল সেন্সর বোর্ড!

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:২৯

অনলাইন ডেস্ক
‘গাল্লি বয়’ ছবির দৃশ্যে আলিয়া ভাট ও রণবীর সিং। ছবি : সংগৃহীত

সেন্সর বোর্ডের ছুরি-কাঁচির ধারে রক্তাক্ত হলো বলিউড তারকা রণবীর সিং ও আলিয়া ভাটের একটি অন্তরঙ্গ দৃশ্য!

আর মাত্র একদিন পরেই বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে (১৪ ফেব্রুয়ারি) মুক্তি পেতে চলেছে জয়া আখতার পরিচালিত ‘গাল্লি বয়’। আর ভালোবাসার দিনটিতে দর্শক দেখতে পারছেন না রণবীর-আলিয়ার প্রতীক্ষিত চুম্বন দৃশ্যটি। ভারতের সিবিএফসি (সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশন) দৃশ্যটি ছেঁটে দিয়েছে।

ট্রেইলার মুক্তির পর এই ছবি নিয়ে বি-টাউনে সাড়া পড়ে যায়। রুপালি পর্দায় রণবীর ও আলিয়ার রসায়ন নিয়ে নানা আলোচনা করেন অনলাইনের ভক্তরা। কিন্তু এই ছবির আবেগময় চুম্বন দৃশ্যটি কর্তন করায় ভক্তকুল হতাশ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি সেন্সর বোর্ডের অনুমোদন পায় ছবিটি। রণবীর ও আলিয়ার ১৩ সেকেন্ডের একটি অন্তরঙ্গ দৃশ্য কর্তন করে বোর্ড। এর স্থলে অন্য শট বসিয়ে দেওয়া হয়। ছবি থেকে একটি হুইস্কি ব্র্যান্ডের নামও মুছে দেওয়া হয়।

সম্প্রতি বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে মুক্তি পায় ‘গাল্লি বয়’। উৎসবে দর্শকের বিপুল সাড়া পায় ছবিটি। চিত্রসমালোচকরাও ভূয়সী প্রশংসা করেন।

টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পরিচালক ক্যামেরন বেইলি ছবিটি নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। টুইট-বার্তায় তিনি জানিয়েছেন, গত ২০ বছরে বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে এই ছবির মতো এতটা সাড়া আর কোনো ছবি জাগাতে পারেনি।

মুম্বাই বস্তিতে বাস করা মুরাদ নামের (রণবীর) এক র‍্যাপার, যে তার সামাজিক-আর্থিক সব অসংগতি সত্ত্বেও তারকা হওয়ার স্বপ্ন দেখে। সবার অনুৎসাহ সত্ত্বেও নিজের মতো করে এগিয়ে যায় মুরাদ আর হয়ে ওঠে তারকা। ঝড় তোলে তার গান।

বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমাটি নিয়ে লালগালিচায় কথা বলার সময় রণবীর সিং বলেন, “শ্রেণিসংগ্রামের ভিত্তিতে দেখতে গেলে এটা একটা অসামান্য গল্প। মানুষের পছন্দের দিক থেকে দেখতে গেলেও এটা অসামান্য গল্প। মানুষের যা আছে তা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়, নাকি প্যাশনকে ভিত্তি করে এগিয়ে যাওয়াই জীবন, সেই গল্পই শোনাবে ‘গাল্লি বয়’।”

র‍্যাপার নাইজি ও ডিভাইনের জীবনের গল্প থেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে ‘গাল্লি বয়’-এর গল্প লিখেছিলেন জয়া আখতার। বস্তি এলাকার বাসিন্দা থেকে পরবর্তী সময়ে তাঁরা র‍্যাপের জগতে নাম করে বিশ্বে হিপ হপ মিউজিকের অন্যতম মুখ হয়ে ওঠেন। সূত্র : এনডিটিভি, ইন্ডিয়া টুডে

Advertisement