Beta

‘অল্প বয়সে’ কোহলিকে বিয়ে করেছিলেন আনুশকা!

১৭ জুলাই ২০১৯, ১৯:৩৩

অনলাইন ডেস্ক
বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা ও তাঁর স্বামী ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। ছবি : সংগৃহীত

বলিউড নায়িকারা সাধারণত একটু বেশি বয়সে ঘরসংসার শুরু করেন। সেই হিসাবে আনুশকা শর্মা একটু তাড়াতাড়িই করেছেন। সে কথা নিজ মুখেই জানালেন ‘পিকে’ তারকা।

কিন্তু কেন এ ত্বরিৎ সিদ্ধান্ত? আনুশকা বললেন, ভারতের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির গভীর প্রেমে পড়েছিলেন তিনি। আর তাই আগেভাগেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। আর তা ছাড়া কোহলির সততায় মুগ্ধ এ সুন্দরী।

সম্প্রতি বিনোদন সংবাদমাধ্যম ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আনুশকা শর্মা বলেছেন, কোহলিকে বিয়ে করার কারণ একটাই, তাঁর প্রেমে পড়েছিলেন। তাই পেশা অভিনয় হওয়া সত্ত্বেও দ্রুত বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পিছপা হননি। আনুশকা আরো বলেন, এতে তাঁর ক্যারিয়ার বা জনপ্রিয়তায় একটুও ভাটা পড়েনি।

‘আমাদের দর্শকও ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। অভিনেতাকে পর্দায় দেখতেই কৌতূহলী দর্শক। তারা ব্যক্তিগত জীবনের পরোয়া করে না, সে বিয়ে হোক বা মা হয়ে যাক। এসব নিয়ে মাথা ঘামানো থেকে বের হওয়া দরকার। আমি ২৯ বছরে বিয়ে করেছি, একজন অভিনেত্রীর জন্য যা একেবারেই অল্প বয়স। কিন্তু প্রেমে পড়েছিলাম বলেই সেটা করেছি এবং এখনো প্রেমেই আছি। বিয়ে একটি প্রাকৃতিক ব্যাপার,’ বলেন আনুশকা।

আনুশকার প্রশ্ন, যখন একজন পুরুষ বিয়ে করে, তখন তো ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবে না। তাহলে কেন মেয়েরা ভাববে?

বিরাট কোহলির সঙ্গে বন্ধন প্রসঙ্গে আনুশকা বলেন, তাঁরা একসঙ্গে খুব ভালো আছেন। তাঁদের চরিত্রগত মিলও রয়েছে।

‘ওর সততার মূল্য দিই। আমি নিজেও সৎ। এ জন্য অনেক ভুগেছিও। সেও খুব সৎ। ওর মতো মানুষের দেখা পেয়ে আমি খুব খুশি, কারণ আমরা দুজন সম্পূর্ণ সততার সঙ্গে জীবনযাপন করতে পারছি। এটা একদম স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন। এমন জীবনসঙ্গী আমার, যার ভেতর কৃত্রিমতা নেই। সবকিছুই নিখাদ। তাছাড়া আমরা একে অন্যকে সাপোর্ট দিই। সে এমন একজন মানুষ, যে সর্বদা নিজের পেশায় আরো ভালো করার চেষ্টা করে, ব্যক্তিজীবনেও তেমন। আমিও ঠিক ওর মতো। আমরা নিজেদের খুব বেশি সিরিয়াসলি নিই না। মানুষ হিসেবে আমরা একই রকম। সে কারণেই একসঙ্গে আমরা,’ বলেন আনুশকা।

সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপ ক্রিকেট চলাকালে ইংল্যান্ডে ঘনিষ্ঠ সময় কাটিয়েছেন আনুশকা-কোহলি। যদিও ভারত সেমিফাইনালে হেরে গেছে, তবু স্বামী ও তাঁর দলের পাশে দাঁড়িয়েছেন আনুশকা। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস

Advertisement