Beta

১২০ বছর ধরে! সবাইকে একি বলে বেড়াচ্ছেন সালমান

২৩ জুলাই ২০১৯, ২২:১২

অনলাইন ডেস্ক
বলিউড তারকা রাভিনা ট্যান্ডন ও সালমান খান। ছবি : সংগৃহীত

একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা রাভিনা ট্যান্ডনকে নাকি বহু বছর ধরে চেনেন সালমান খান। তা হতেই পারে। তাই বলে এত বছর! শুনলে চমকে উঠবেন। কিন্তু সেটাই নাকি সবাইকে বলে বেড়ান বলিউড ভাইজান।

নাচের রিয়েলিটি শো ‘নাচ বলিয়ে’র নবম মৌসুমে ছোটপর্দায় ফিরছেন সালমান খান। শোটি প্রযোজনাও করছেন সালমান। শুধু তাই নয়, উদ্বোধনপর্বে মনীষ পালের সঙ্গে সঞ্চালনও করেছেন এ মহাতারকা। আর এই শোর বিচারক হয়েছেন ১৯৯১ সালে ‘পাত্থর কে ফুল’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হওয়া রাভিনা ট্যান্ডন।

সালমানের সঙ্গে কমেডি ছবি ‘আন্দাজ আপনা আপনা’-তে কাজ করেছিলেন রাভিনা ট্যান্ডন। এবার টিভি শোতে একসঙ্গে হাত মেলালেন। তাঁদের সম্পর্ক যে মধুর, তা প্রমাণ হলো রাভিনার কথাতেই। এ অভিনেত্রী জানালেন, সালমান খান নাকি সবাইকে বলে বেড়ান তাঁর সঙ্গে চেনাজানা ১২০ বছর ধরে!

গত শুক্রবার ভারতের জনপ্রিয় টিভি তারকা, ‘ইয়ে রিশতা কিয়া কেহলাতা হ্যায়’ অভিনেতা মহসিন খান ও শিবাঙ্গী যোশির রোমান্টিক নাচ দিয়ে শুরু হয় ‘নাচ বলিয়ে’র নবম মৌসুম।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মিড ডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাভিনা বলেছেন, “সালমান প্রত্যেককে বলেন, তিনি আমায় ১২০ বছর ধরে চেনেন। তাঁর সঙ্গে এত মধুর সম্পর্ক। আমরা সেটে একটানা কথা বলে গিয়েছিলাম। কিন্তু যখন পর্বটি সম্প্রচার করা হলো, বুঝলাম, অনেক কিছুই সম্পাদনা করা হয়েছে। আমরা তখন দুজন দুজনকে বললাম, ‘আমরা কেন এত কথা বলি?’”

‘আমরা আমাদের সিনেমার সেই শুটিংয়ে ফিরে যাই। ফিরে যাই ২৯ বছর আগে। তো বুঝুন, আমাদের কেমন আলাপ হতে পারে,’ যোগ করেন রাভিনা।

শোতে বিচারক হিসেবে নিজের ভূমিকা প্রসঙ্গে রাভিনা বলেন, ‘আমি সব সময় উৎসাহ দিয়ে থাকি, প্রেরণা দিই। আমি মনে করি না, বিচারক মানেই আসনে বসে থাকা আর সমালোচনা করা। প্রত্যেকে প্রত্যেকের জায়গা থেকে সেরাটাই দেওয়ার চেষ্টা করে। কেউ ইচ্ছে করে তো বাজে পারফরম্যান্স করে না, কিন্তু মাঝেমধ্যে খারাপটা হয়েই যায়। বিচার হওয়া উচিত খুবই সংবেদনের জায়গা থেকে, প্রতিযোগী যেন উঠে দাঁড়াতে পারে।’

এবারের শোর নতুন ধারণা হলো, এতে সাবেক প্রেমিকযুগল অংশ নিচ্ছেন।

এর আগে সালমান বলেছিলেন, ‘যদি দুজন মানুষ একসঙ্গে পথ চলতে না পারে, তবে প্রত্যেককেই মেনে নেওয়া উচিত। একটি ক্ষেত্রে যদি নাও মেলে, তবুও একত্র হওয়া যায়, একসঙ্গে কাজ করা যায়। বিচ্ছেদের পরেও ছেলেমেয়েরা বন্ধু হতে পারে, অবশ্য তা নির্ভর করে।’ প্রতি শনি ও রোববার ভারতের স্টার প্লাসে এই শো দেখানো হচ্ছে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Advertisement