Beta

ভবঘুরে থেকে সেলিব্রেটি, অহংকার বাড়ল রানুর?

২৯ আগস্ট ২০১৯, ১৫:১২ | আপডেট: ২৯ আগস্ট ২০১৯, ১৬:১৮

অনলাইন ডেস্ক
অতীন্দ্র চক্রবর্তীর সঙ্গে রানু মণ্ডল। ছবি : সংগৃহীত

রেলস্টেশনের ভবঘুরে, ভিক্ষুক। যাঁকে কেউ একসময় পাত্তাও দেননি, আজ তিনি বড় তারকা। রাতারাতি বদলে গেছে রানু মণ্ডলের জীবন। স্টেশনের গায়িকা থেকে সোজা জাতীয় পর্যায়ের গায়িকা। রানু মণ্ডলকে এখন ভারতবাসী তো বটেই, উপমহাদেশের অসংখ্য মানুষ চেনেন।

মেয়েরা বিয়ের পর মাকে একা রেখে চলে গিয়েছিল। সেই রানু মণ্ডলের গাওয়া লতা মঙ্গেশকরের ‘এক পেয়ার কা নাগমা’ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর খুলে যায় ভাগ্য। রাতারাতি তারকা বনে যান স্টেশনের রানু। এর পরই মেয়েরা ফিরে এসেছে তাঁর কাছে। তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় সৌন্দর্য সেবাকেন্দ্রে। চুল স্ট্রেট করা হয়। কালো রং করা হয়, পরানো হয় দামি শাড়ি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮ প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রানু এখন তারকা। কিন্তু নেটিজেনদের অভিযোগ, মিষ্টভাষী, নম্র রানু নাকি এখন অনেকটাই বদলে গিয়েছেন। তাঁর মধ্যে ক্রমশ ঢুকে পড়ছে ঔদ্ধত্য, অহংকার।

পেশায় ইলেকট্রনিক টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ার অতীন্দ্র চক্রবর্তী। রানাঘাট স্টেশন দিয়ে তাঁর নিত্য যাতায়াত। স্টেশন চত্বরে রানুর গান শুনে অবাক হয়েছিলেন। এর পর তিনি নিজ উদ্যোগে রানু মণ্ডলের গান রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেন। নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর যখন সবাই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চান, তখন অতীন্দ্রই সবখানে নিজের মুঠোফোনের নম্বর দেন। এমনকি রানুকে মুম্বাই নিয়ে গিয়েছিলেন অতীন্দ্রই। কিন্তু এর প্রতিদান কীভাবে দিলেন রানু?

সম্প্রতি একটি ভিডিও অন্তর্জালে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে রানুকে প্রশ্ন করা হয়, এই যে অতীন্দ্রের মতো মানুষের দৌলতে তিনি এত জায়গায় যাচ্ছেন, এ নিয়ে তিনি কী বলবেন? উত্তরে রুক্ষতার সঙ্গে রানু বলেন, ‘ভগবানের দৌলতে যাচ্ছি। ওরা ভগবানের সারভেন্ট, চাকর। আমি ওদের সাহায্যে যাচ্ছি না। ভগবানের সাহায্যে যাচ্ছি।’

দেখুন ভিডিও :

রানু মণ্ডলের এই ভিডিও অন্তর্জালে ছড়িয়ে পড়ার পরই নেটিজেনদের বক্তব্য, ‘যে মানুষটা তাঁকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দিলেন, তাঁকেই কিনা চাকর বলে সম্বোধন করলেন রানু!’

যা হোক, ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর খবর, আর সবার মতোই রানু মণ্ডলের জাদুকরি কণ্ঠে মুগ্ধ হয়েছেন সালমান খান। আর তাই তাঁকে ৫৫ লাখ রুপি দামের একটি বাড়ি উপহার দিয়েছেন ভাইজান।

প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়েছে, আসন্ন ‘দাবাং থ্রি’ ছবির জন্য রানুর একটি গান রেকর্ড করার পরিকল্পনা করছেন সালমান।

এরই মধ্যে ভারতের জনপ্রিয় সুরকার হিমেশ রেশমিয়ার পরবর্তী ছবি ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’-এর জন্য গান গেয়েছেন রানু। ছবিটিতে রানুর ‘তেরি মেরি কাহানি’ গানটি প্রদর্শিত হবে।

Advertisement