Beta

তলপেটের মেদ ঝরাতে নিয়মিত হাঁটুন

২৯ অক্টোবর ২০১৭, ১০:৩৬ | আপডেট: ২৯ অক্টোবর ২০১৭, ১৪:৪৬

অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরী
তলপেটের মেদ কমাতে নিয়মিত হাঁটুন। ছবি : সংগৃহীত

তলপেটের মেদ হলে ভাবনার কথা। তবে ওজন কমলে তলপেটের মেদই আগে ঝরে। শরীর আপেল আকৃতি হোক বা নাশপাতি গড়নই হোক, মেদ যখন ঝরে, ওজন কমার সময় তখন পেটের মেদই খসে যায় প্রথম। তলপেটের মেদ বিপাকীয়ভাবে সক্রিয় এবং ত্বকের নিচের মেদের চেয়ে দ্রুত ঝরে সে মেদ। 

তলপেটের মেদ হলো আন্তরযন্ত্রের মেদ, পেটের ভেতরে যন্ত্রগুলোর চারপাশে ঘিরে থাকে এই মেদ। এই মেদ বিপজ্জনক। এই মেদ হারানো সহজ। 

কখন মেদ হয়েছে, বলা যাবে? নারীদের ক্ষেত্রে কোমরের বেড় ৩৫ ইঞ্চির বেশি হলে তলপেটের মেদ বলা যাবে। আর পুরুষের কোমরের বেড় ৪০ ইঞ্চির বেশি হলে তলপেটে বেশ মেদ জমেছে বলা যাবে। এমন হলে ওজন কমাতে হবে শরীরের। 

তলপেটের মেদ বেশ সক্রিয়। এই মেদ থেকতে উৎসারিত হয় হরমোন এবং প্রদাহ উদ্দীপক বস্তু। এই মেদ ভেঙে দ্রুত তৈরি হয় মেদ অম্ল : রক্তস্রোত গিয়ে পৌঁছায় যকৃতে, পেশিতে। চর্বি ও রক্তের জমাট টুকরো আসে রক্তে : হৃদরোগ, ডায়াবেটিস এসব রোগের সূচনা হয়।

তলপেটে মেদ ঝরানোর জন্য সুবর্ণ পথ হলো হাঁটা। দ্রুত হাঁটা। হেঁটে হেঁটে ঘামা। তাই তলপেটের মেদ কমাতে নিয়মিত হাঁটুন। হাঁটা মেদ ঝড়াতে বেশ কাজে দেবে। 

লেখক : অধ্যাপক ও ডিরেক্টর ল্যাব সার্ভিস, বারডেম।
 

Advertisement