ঘাড়ব্যথা থেকে মাথাব্যথা : কী করবেন?

১৯ জুন ২০১৯, ২০:৩৫

ফিচার ডেস্ক
ঘাড়ব্যথার বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেছেন অধ্যাপক ডা. মো. আলতাফ হোসেন ও ডা. সানজিদা হোসেন। । ছবি : সংগৃহীত

টানা একই অঙ্গ বিন্যাসে বসে থাকা, কম্পিউটার ও মোবাইল ফোন দেখা, রিকশার ঝাকি ইত্যাদি কারণে ঘাড়ব্যথা হয়। তবে ঘাড়ব্যথা ছড়িয়ে কিন্তু মাথার দিকে যেতে পারে। এতে মাথাব্যথা হয়।

ঘাড়ব্যথা থেকে মাথাব্যথা হলে করণীয় কী, এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৪৬৬তম পর্বে কথা বলেছেন অধ্যাপক ডা. মো. আলতাফ হোসেন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ওপেন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ও লেজার ফিজিওথেরাপির প্রধান পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : ঘাড়ব্যথার কারণে মাথাব্যথা হলে বোঝার উপায় কী?

উত্তর : মাথার এমআরআই করা হচ্ছে, সিটিস্ক্যান, এক্স-রে করা হচ্ছে। কিন্তু মাথায় কিছু নেই। রোগী বলে আমার তো ব্যথা মাথায়। তবে গবেষকরা বলছেন, সারভাইকেলের সি ওয়ান, সি টু, সি থ্রি নার্ভ দিয়ে ব্যথা মাথায় যায়। আবার সি টু, সি থ্রি নার্ভ দিয়ে ব্যথা চোখে যায়। সুতরাং অনেক সময় ঘাড়ব্যথা হলে চোখেও ব্যথা হয়। গালে আমাদের ফাইফ ক্রেনিয়াল নার্ভ রয়েছে। এই ক্রেনিয়াল নার্ভের সঙ্গে সি থ্রি নার্ভের যোগ হয়ে এরা গালে পরিবহন করে। অনেক সময় ঘাড়ে ব্যথা হলে, চোয়ালে ব্যথা, দাঁতে ব্যথা, জিহ্বার ভেতরে ব্যথা হতে পারে। আপনি হয়তো বুঝতে পারছেন না কেন হচ্ছে। ঘাড়ে চাপ দিয়ে দেখলেন ব্যথা হচ্ছে।

তাই ঘাড়ের ব্যথা থেকে ওপরে দিকে মাথাব্যথা পাই। আর নিচের দিকে কাঁধ বা হাতে ব্যথা পাই। তাই বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে পেশি ও অঙ্গবিন্যাসে। খানিক্ষণ বাঁকা হয়ে কাজ করার পর আপনি আপনার আসল অঙ্গবিন্যাসে ফিরে যান। ঘাড়টিকে চাপ দিয়ে ধরে রাখেন, পাঁচ মিনিটের জন্য। এভাবে পাঁচ থেকে ১০ বার আপনি করেন এবং আপনার ঘাড়কে ডান দিকে ও বাম দিকে বাঁকান। অথবা যারা নামাজ পড়েন তারা একটু পূর্ণ সালাম ফিরান। দেখবেন, আপনার ঘাড়ে ব্যথাটা কমে যাবে।

প্রতিটি লোকেরই সারা দিন কাজ করার পরে, সকালে ও সন্ধ্যায় একটি ব্যায়াম করা উচিত। চোয়াল থেকে মাথায় ধরে একদম মাথাকে এনে যতটুকু পারেন আপনি সামনের দিকে রাখুন। পাঁচ সেকেন্ডের জন্য রাখুন।

কারণ, সাব অক্সিটাল পেশি টাইট হয়ে থাকে, দুর্বল হয়। এদের যদি শক্ত না করি, আপনার ব্যথা যাবে না। কারণ, সে তো দুর্বল। তাই দুর্বল পেশিকে শক্তিশালী করতে হবে।