Beta

স্বামীর মনোযোগ ফিরে পেতে চান? যা করবেন

২২ আগস্ট ২০১৯, ০১:১৬

ফিচার ডেস্ক

একটি নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়ার পর প্রতিটি সম্পর্কেই বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়। দুজনের মধ্যে ভালোবাসা ও বন্ধন ধরে রাখতেই এর প্রয়োজন। ভালোবাসাহীনতার কারণে বন্ধনে কিছুটা চিড় ধরে, তা কিন্তু নয়। একে অন্যের প্রতি অবহেলা থেকেই এর সূত্রপাত।

এ ছাড়া বিয়ের পর প্রত্যেকের জীবনে অনেক কিছুতে পরিবর্তন আসে। পরিবারের প্রতি কর্তব্য থেকেই আপনি আরো বেশি দায়িত্বশীল হয়ে উঠবেন। শুধু তা-ই নয়, কখনো বা স্বামী তাঁর জীবনে আকর্ষণীয় কিছু খুঁজে পান। ফলে তিনি আপনাকে অবহেলা করতে শুরু করেন। তখন সম্পর্ক রক্ষা করা একান্তই জরুরি হয়ে পড়ে।

ইন্ডিয়া টিভির অনলাইন সংস্করণের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন কিছু উপায় বাতলে দিয়েছে, যা আপনার প্রতি স্বামীর আকর্ষণ ফেরাতে সাহায্য করবে :

রোমান্টিক ডেটের পরিকল্পনা

শেষ কবে দুজনে বেড়াতে গিয়েছেন? নিশ্চয়ই দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হয়েছে। তাই রোমান্টিক ক্যান্ডেল লাইট ডিনার করুন, সিনেমা দেখতে যান কিংবা স্বামীর জন্য পছন্দসই খাবার রান্না করুন। এসব অবশ্যই আপনার প্রতি ভালোবাসা হারানোর অনুভূতি ফিরে পেতে সাহায্য করবে।

দূর-ভ্রমণে যান

স্বামীর যথেষ্ট মনোযোগ না পেলে লং ড্রাইভের পরিকল্পনা সেরে ফেলুন এবং সেটি শুধু আপনাদের দুজনের। লং ড্রাইভে দুজন দারুণ কিছু সময় কাটান। এতে সম্পর্কে জমে থাকা বরফ নিমেষেই গলে যাবে।

স্বামীর জন্য রান্না করুন

আপনি শুনে থাকবেন, একজন পুরুষের হৃদয়ে প্রবেশ করতে হলে তাঁর পাকস্থলীর মাধ্যমে যেতে হয়! সুতরাং তাঁর জন্য রান্না করুন। তাঁর প্রিয় খাবারগুলো রান্না করার চেষ্টা করুন। পারলে নিজ হাতে খাইয়ে দিন। সপ্তাহে অন্তত একবার তাঁর পছন্দের খাবার রান্না করে চমকে দিন। এতে আপনার বাড়তি কিছু শ্রম দিতে হলেও সম্পর্ক উন্নতিতে অমূল্য ভূমিকা রাখবে।

পুরোনো স্মৃতির কথা বলুন

দৈনন্দিন ব্যস্ততার জাঁতাকলে আমরা প্রায়ই আমাদের সুন্দর স্মৃতিগুলো ভুলে যাই। তাই আপনার ছবির অ্যালবামটি খুলুন, কিছুটা স্মৃতিকাতর হোন। মধুর স্মৃতিগুলো নিয়ে দুজনে কথা বলুন। বিশ্বাস করুন, এটি আপনার স্বামীর মনোযোগ আকর্ষণে জাদুর মতো কাজ করবে।

প্রশংসা করুন

প্রশংসা পেতে কে না পছন্দ করে! হ্যাঁ, আপনার স্বামীও পছন্দ করেন। সুতরাং প্রশংসাসূচক বাক্যের মাধ্যমে তাঁকে সুখী করে তুলুন। তাঁকে পেয়ে আপনি কতটা সুখী বা তাঁর সততায় আপনার মুগ্ধতার কথাও জানিয়ে দিন। তাঁর প্রতি আপনার ভালোবাসা কীভাবে গভীর হয়ে উঠল, তা জানাতেও ভুলবেন না।

সব সমস্যাই সমাধানযোগ্য। একটু সময় লাগবে হয়তো। তাই স্থির হয়ে আপনার সঙ্গীকে সময় দিন। অকারণে চিন্তিত হবেন না। যা হোক, নিজেকে সময় দিতেও ভুলবেন না কিন্তু।

Advertisement