ফিনল্যান্ডের ডায়েরি : তুরকু দ্বীপমালা

১৮ জুলাই ২০১৭, ১৩:০৮

মো. রাশেদুর রহমান রাশিব

হাজার হ্রদের দেশ ফিনল্যান্ডের দক্ষিণে আছে সুনীল বাল্টিক সাগর আর এই সাগরের বুকে জেগে আছে ছোট ছোট দ্বীপ। ফিনল্যান্ডের প্রাচীন রাজধানী ও দ্বিতীয় বড় শহর তুরকু। এই তুরকু শহরের পাশেই Turku Archipelago  বা তুরকু দ্বীপমালার অবস্থান। প্রায় ২০ হাজার ছোট ছোট দ্বীপের সমন্বয় গঠিত পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ দ্বীপমালা। ফিনল্যান্ডের শেষ প্রান্তে অবস্থিত দ্বীপ অল্যান্ড পর্যন্ত এর বিস্তার। 

 ছোট এই দ্বীপগুলো সবুজ শ্যামলিমায় ভরা। গ্রীষ্মের আগমনে এই দ্বীপগুলো যেন নতুন জীবন ফিরে পায়। দ্বীপগুলোর আয়তন কয়েক বর্গমিটার থেকে শুরু করে কয়েক কিলোমিটার পর্যন্ত। নীল বাল্টিক সাগরের বুকে একখণ্ড সবুজ দ্বীপ। কোনো কোনো দ্বীপে আছে ছোট্ট একটু সমুদ্রসৈকত। এই দ্বীপগুলোতে লোকবসতি নেই, শুধু গ্রীষ্মকালে মানুষের বিনোদনের জন্য এ দ্বীপ খুলে দেওয়া হয়।

কিছু সামার কটেজ, সামার রেস্টুরেন্ট আর বারবি কিউ হাউস আছে ভ্রমণপিয়াসীদের জন্য। কিছু কিছু দ্বীপ আছে যেগুলো ব্যক্তি মালিকানাধীন। টাকা থাকলে এখানে একটা ছোট দ্বীপের মালিক আপনিও হতে পারবেন, অবশ্য সেক্ষেত্রে আপনাকে ফিনিশ নাগরিক হতে হবে। ফুটবল আর ভলিবল খেলার সুবিধা আর ছোট ছোট নৌকা বা কায়াক নিয়ে ঘোরাঘুরির ব্যবস্থাও আছে।

তুরকু সিটি করপোরেশন থেকে অনুমতি নিয়ে দ্বীপে রাত্রিযাপন করা যাবে। এই রকম এক দ্বীপ ভেপসাতে বাঙালি ছাত্ররা, আমরা সবাই গিয়েছিলাম গত ছুটির দিনে। শহর থেকে লিলি নামের জাহাজ সামারে প্রতিদিন ছেড়ে যায় ভেপসা দ্বীপের উদ্দেশে। অসাধারণ সুন্দর একটা দ্বীপ। এক প্রান্তে পাহাড়ের মতো জায়গা আছে যেখান থেকে দূর সমুদ্রের জেগে থাকা সবুজ দ্বীপগুলো হাতছানি দেয়, ঠিক যেমন হাতছানি দেয় ভরা বর্ষায় হাওরের গ্রামগুলো।

লেখক : মাস্টার্স শিক্ষার্থী, বায়োমেডিকেল ইমেজিং, অবো একাডেমি ইউনিভার্সিটি