Beta

মালয়েশিয়া স্বাধীনতা দিবস অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিল ৭০ দেশ

২৮ মার্চ ২০১৮, ২৩:০৯

বাংলাদেশের ৪৭তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের রেনেসাঁ হোটেলের বলরুমে বসেছিল বিদেশি কূটনীতিকদের মিলনমেলা। ছবি : এনটিভি

মালয়েশিয়ায় নানা আয়োজনে পালন করা হয়েছে ৪৮তম স্বাধীনতা দিবস। এ উপলক্ষে বাংলাদেশ হাইকমিশন আলোচনা সভার আয়োজন করে।

গত সোমবার বিকেল সাড়ে ৭টায় কুয়ালালামপুরের রেনেসাঁ হোটেলের বলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হাইকমিশনার মো. শহিদুল ইসলাম। সঞ্চালনায় ছিলেন দূতালয় প্রধান ওয়াহিদা আহমেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও শিল্প উপমন্ত্রী ওয়াই বি দাতুকে হাজি আহমদ বিন হাজি মাসলান। অনুষ্ঠানে ৭০টি দেশের কূটনীতিক উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। এ সময় মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সামনে স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের সার্বিক অগ্রগতি তুলে ধরেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত হাইকমিশনার শহিদুল ইসলাম। এ সময় তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। নতুন প্রজন্মের বাংলাদেশ হবে সুখ ও সমৃদ্ধির। নতুন স্বদেশ গড়ার পথে নতুন প্রজন্মের মূল শক্তি থাকবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়ার এমআইসির সাবেক সভাপতি দাতুক সেরি এস সামি ভেলু, দূতাবাসের ডিফেন্স উইং প্রধান এয়ার কমডোর হুমায়ূন কবির, শ্রম কাউন্সিলর মো. সায়েদুল ইসলাম মুকুল, মিনিস্টার রইছ হাসান সারোয়ার, প্রথম সচিব মাসুদ হোসাইন, প্রথম সচিব (শ্রম) মো. হেদায়েতুল ইসলাম মণ্ডল, কমার্শিয়াল উইং রাজিবুল আহসান, পাসপোর্ট ও ভিসা শাখার প্রথম সচিব মো. মশিউর রহমান তালুকদার, প্রথম সচিব তাহমিনা ইয়াসমিন, শ্রম শাখার দ্বিতীয় সচিব মো. ফরিদ আহমদ, বাংলাদেশ কমিউনিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম রহমান পারভেজ।

প্রবাসী কমিউনিটি, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন এবং বাংলাদেশ দূতাবাসের সব কর্মকর্তার উপস্থিতিতে প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছিল অনুষ্ঠানটি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement