Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

বিতরের নামাজের কসর পড়তে হয়?

০৯ আগস্ট ২০১৮, ১১:১১

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। শরীফ বায়জীদ মাহমুদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম শাইখ মো. রফিকুল ইসলাম আল-মাদানী।

আপনার জিজ্ঞাসার ২১৪৯তম পর্বে কসরের সময় বিতরের নামাজ পড়তে হবে কি না, সে সম্পর্কে ফরিদপুর থেকে চিঠিতে জানতে চেয়েছেন শারমিন নাজমা। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : কসরের সময় কি বিতর নামাজ পড়তে হবে? নানাবাড়িতে কি কসর নামাজ পড়তে হয়? 

উত্তর : একজন মানুষ যখন মুসাফির হয় বা সফরে থাকে, তখন সে কসর আদায় করে। সফর তো দুই দিক থেকে হয়, একটি হলো সময়ের দিক থেকে, আরেকটি হলো স্থানের বা দূরত্বের দিক থেকে। যদি এমন হয় যে আপনি কসর পড়তে পারছেন, অর্থাৎ মুসাফির, সেই ক্ষেত্রে আপনাকে চার রাকাতের ফরজ নামাজগুলো দুই রাকাত করে কসর করতে হবে।

অন্যান্য সুন্নত না পড়লেও চলবে। তবে নবীজি (সা.) ফজরের সুন্নত ও বিতরের নামাজ কখনো ছাড়তেন না। অতএব, আপনি সফরে থাকলেও বিতরের নামাজটা পুরাই আদায় করতে হবে।

যেহেতু বিতরের নামাজের কসর হয় না, সুতরাং আপনি যদি তিন রাকাত পড়েন, তাহলে তিন রাকাত, যদি পাঁচ রাকাত বা এক রাকাত পড়তে চান, তাও পড়তে পারবেন। আর ফজরের যে দুই রাকাত সুন্নত রয়েছে ,এই সুন্নতটিও বাদ দেওয়া যাবে না, এটিও পড়তে হবে।

নানার বাড়িতে আপনি যদি নিজেকে মুসাফির মনে করেন, তাহলে কসর করবেন। আবার অনেকেই নানার বাড়িতে নিজেকে মুসাফির মনে করেন না, সেখানে তাঁর কসর পড়া লাগবে না। এ ক্ষেত্রে দুইটা মতই গ্রহণযোগ্য।   

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement