Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

রুকু সেজদার তাসবিহ ভুল পড়লে করণীয় কী?

২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১২

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২২২১তম পর্বে কারো যদি সেজদার তাসবিহ রুকুতে আর রুকুর তাসবিহ সেজদার তাসবির সাথে বদলে যায়, তাহলে তার করণীয় কী, সে বিষয়ে ই-মেইলে জানতে চেয়েছেন নিলুফার হোসেন। অনুলিখন করেছেন জান্নাত আরা পাপিয়া।

প্রশ্ন : কারো যদি সেজদার তাসবিহ রুকুতে আর রুকুর তাসবিহ সেজদার তাসবির সাথে বদলে যায়, তাহলে তার কী করণীয়?

উত্তর : না, এতে কোনো ধরনের করণীয় নেই। তার উপর সেজদায়ে সাহু আসবে না। তবে সালাতের অমনযোগীতার বিষয়টি গ্রহণযোগ্য নয় এবং এটা বিচ্যুত, সঠিক কাজ নয়।

কারণ, কোরআনে আল্লাহ তাআলা বলেছেন, ওই সকল মুসল্লির জন্য ধ্বংস আছে, যারা নিজেদের সালাতের মধ্যে অমনযোগী, খামখেয়ালি। এটা কার হতে পারে? ওই ব্যক্তিরই হতে পারে, যে ব্যক্তি সত্যিকার অর্থে সালাতের মধ্যে তার মনঃসংযোগ দিতে পারেনি।

একনিষ্ঠতার সাথে, মনযোগের সাথে, আন্তরিকতার সাথে সালাত আদায় করবে, আল্লাহর প্রতি অনুরাগ রেখে সালাত আদায় করবেন। সেই অনুরাগ সালাতের মধ্যে যার আসেনি, সে ব্যক্তি সেজদার তাসবিহ রুকুতে আর রুকুর তাসবিহ সেজদার জায়গায় পড়বেন,  উল্টা-পাল্টা করবেন।

আর যিনি সত্যিকার সালাতের মধ্যে মনযোগী হবেন অথবা আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য সালাত আদায় করবেন, তাঁর এ ধরনের উল্টা-পাল্টা কাজ কোনো ভাবেই হবে না।

তবে যদি এটা অসুস্থ্যতার জন্য হয়ে থাকে, তার জন্য ভিন্ন মাসয়ালা আছে। তবে এ ক্ষেত্রে তার উপর সেজদায়ে সাহু ওয়াজিব হবে না অথবা দ্বিতীয়বার সালাত আদায় করতে হবে, এমন নয়। তার সালাত হয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ।

Advertisement