Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

বাবা-মা রোজা রাখতে না দিলে কী করব?

০৭ মে ২০১৯, ১৩:৫৪ | আপডেট: ০৭ মে ২০১৯, ১৩:৫৮

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২২৪০তম পর্বে বাবা-মা রোজা রাখতে না দিলে করণীয় কী, সে বিষয়ে মেইলে জানতে চেয়েছেন ফাতিম। অনুলিখন করেছেন জান্নাত আরা পাপিয়া।

প্রশ্ন : আমার নাম ফাতিম। বয়স সতেরো বছর। আমার ওপর কি রোজা রাখা ফরজ? যদি ফরজ হয় আর আমার বাবা-মা যদি রমজানে রোজা রাখতে না দেন, তখন আমার করণীয় কী হবে?

উত্তর : অবশ্যই আপনার ওপর রোজা রাখা ফরজ। ইমানদার ব্যক্তির ওপর আল্লাহ সিয়াম ফরজ করেছেন। আর সিয়াম ফরজের জন্য মৌলিক যে শর্ত রয়েছে, তার মধ্যে একটি হলো প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া। সুতরাং, আপনার ওপর সিয়াম ফরজ, এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।

আপনার বাবা-মা যদি সিয়াম রাখতে বাধা দেন, তাহলে তাঁদের এই বাধা আপনার জন্য অনুসরণ করা হারাম। তাঁদের আপনি বলবেন যে, ‘আমি আল্লাহর বান্দা, আপনাদের আমি শুধু সন্তান। কেয়ামতের দিন আপনারা আমার কোনো বিষয়ে উত্তর দিতে পারবেন না, আমিও  আপনাদের কোনো বিষয়ে উত্তর দিতে পারব না।’ সুতরাং, এ ক্ষেত্রে তাঁদের বক্তব্য শোনা বা অনুসরণ করা আপনার জন্য হারাম।

সন্তানের বয়স সতেরো হওয়ার পর বা সন্তান প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর, সেই সন্তানকে আল্লাহর ফরজ ইবাদত পালন করতে বাধা দেওয়া, এটা কোনো পিতা-মাতার জন্য উচিত নয়। এর জন্য তিনি নিজেকে তো গুনাগার করলেনই, অতিরিক্ত সন্তানের গুনাহও নিজের মাথার ওপর নিলেন।

Advertisement