Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

জিলহজ মাসে চুল, দাড়ি বা নখ কাটার বিধান কী?

০২ আগস্ট ২০১৯, ১১:৪৯

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ৫৯৭তম পর্বে জিলহজ মাসে চুল, দাড়ি বা নখ কাটার বিধান আছে কি না, সে বিষয়ে পল্লবী থেকে টেলিফোনে জানতে চেয়েছেন ডা. ওয়াজেদ। অনুলিখন করেছেন জান্নাত আরা পাপিয়া।

প্রশ্ন : জিলহজ মাসের প্রথম নয়দিন রোজা রাখা এবং সেই সঙ্গে দাড়ি, গোঁফ, চুল বা নখ কাটা— এগুলোর শরীয়ত সম্মত বিধান আছে কি?

উত্তর : রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি জিলহজ মাসে কোরবানি করবে, তাহলে সে যেন তার শরীরের পশম এবং নখ না কাটে, কোরবানি করা পর্যন্ত।’ যদি কোনো ব্যক্তি কোরবানি করার নিয়ত করে থাকেন, তাহলে তিনি জিলহজ মাসের চাঁদ ওঠা থেকে শুরু করে কোরবানি করা পর্যন্ত হাতের নখ, মাথার চুল বা শরীরের যে পশমগুলো রয়েছে, সেগুলো কাটবেন না। এটি কোরবানির সঙ্গে যুক্ত মাসয়ালা, রোজার সঙ্গে এটি যুক্ত নয়। এ বিধান শুধু ওই ব্যক্তির ওপর যিনি কোরবানি করবেন, পরিবারের সবার জন্য এ বিধান নয়। আবার এটাকে সবার জন্য সুন্নাহ মনে করার বিষয়ও এটি নয়।

একদল ওলামায়ে কেরাম বলেছেন, ‍‍‌‌‍‍‌‌‌‌‘এই কাজটি মুস্তাহাব।’ আরেক দল ওলামায়ে কেরাম বলেছেন, ‘এ কাজটি ওয়াজিব।’ তবে রাসুল (সা.)-এর নির্দেশনা থেকে বোঝা যায় যে, এ কাজটি গুরুত্বপূর্ণ, এতে কোনো সন্দেহ নেই। সুতরাং, যাঁরা কোরবানি করবেন তাঁদের জন্য উত্তম হলো তাঁরা চুল, দাড়ি, গোঁফ এবং নখ কোরবানি হওয়ার আগ পর্যন্ত কাটবেন না। কোরবানি হওয়ার পর এগুলো কাটা জায়েজ রয়েছে।

Advertisement