Beta

শোক ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশ দলকেও

১৩ মার্চ ২০১৮, ১৬:০৩ | আপডেট: ১৩ মার্চ ২০১৮, ১৭:১০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলার বিমান দুর্ঘটনার খবরে গোটা দেশ ছেয়ে গেছে শোকের চাদরে। ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়ে যায় পুরো বিমানটি। এ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৫০ জন। এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শোক ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকেও। নিহতদের স্মরণে আগামীকাল বুধবার ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ দল মাঠে নামবে কালো ব্যাজ ধারণ করে।

শুধু তাই নয়, এমন দুর্ঘটনায় মর্মাহত পুরো বাংলাদেশ দল। আজ মঙ্গলবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘এমন তো হতে পারত আমার কোনো আত্মীয় ওই বিমানে থাকতে পারত। এটা খুবই মর্মান্তিক ঘটনা। পুরো দল নিহত বাংলাদেশিদের জন্য মর্মাহত।’

নিদাহাস ট্রফির লড়াইয়ে বাংলাদেশ দল অবস্থান করছে শ্রীলঙ্কাতে। স্বাগতিকদের বিপক্ষে দারুণ এক জয়ে ফুরেফুরে মেজাজেই ছিলেন তামিম-মাহমুদউল্লাহরা। ঠিক তখনই এমন দুর্ঘটনা সারা দেশের সঙ্গে স্তব্ধ করে দেয় কলম্বোয় অনুশীলনে ব্যস্ত বাংলাদেশ দলকে। অধিকাংশ ক্রিকেটারই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিহত ও আহতদের প্রতি জানিয়েছেন সমবেদনা।

উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল টুইটারে লিখেছেন, ‘বিমানে থাকা যাত্রী এবং তাঁদের স্বজনদের ব্যথা বুঝতে পারছি। নিহত ব্যক্তিদের আল্লাহতায়ালা কবুল করে নিক। বেঁচে আছেন যাঁরা, তাঁরাও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুক। আমরা তাঁদের জন্য দোয়া করি।’

মাহমুদউল্লাহ নিজের ফেসবুক পেজে জানিয়েছেন সমবেদনা। ‘আমরা শোকাহত’ হ্যাশট্যাগে অধিনায়ক লিখেছেন, ‘ওই ফ্লাইটে থাকা সব যাত্রী এবং তাঁদের স্বজনদের জন্য খুবই খারাপ লাগছে। আল্লাহতায়ালা নিহত সবাইকে কবুল করে নিক এবং জান্নাতের সর্বশ্রেষ্ঠ স্থানে রাখুক। তাঁদের পরিবার এই শোক সামলে নেওয়ার সাহস পাক।’

দলের সঙ্গে শ্রীলঙ্কায় না থাকলেও টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও ব্যথিত এমন ঘটনায়। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার নিজের ফেসবুক পেজে শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সান্ত্বনা দিয়ে লিখেছেন, ‘সংবাদটি শুনতে পেয়ে ভীষণ মর্মাহত হয়েছি। ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আমার আর শিশিরের সমবেদনা থাকল। আহত সবাই দ্রুত সুস্থতা কামনা করি। এই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে সৃষ্টিকর্তা নিহতদের পরিবারকে সাহস জোগাক।’

গতকাল সোমবার দুপুর আড়াইটায় ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণ করতে গিয়ে বিমানটির একপাশে আগুন ধরে যায়। পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয়ে যায় বিমানটি। ৬৭ যাত্রী ও চার ক্রুসহ মোট ৭১ আরোহী নিয়ে নেপালের উদ্দেশে রওনা করেছিল বিমানটি।

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে আগামীকাল ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আর সে ম্যাচেই নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মৃতিতে কালো ব্যাজ ধারণ করে মাঠে নামবেন মাহমুদউল্লাহরা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement