Beta

প্রীতির সঙ্গে শেবাগের বিচ্ছেদ!

০৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:৩৪ | আপডেট: ০৫ নভেম্বর ২০১৮, ০০:৩৯

স্পোর্টস ডেস্ক

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন সাবেক ভারতীয় ওপেনার বীরেন্দর শেবাগ। ২০১৬ সালে দলটির দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। তবে দুই সেশন দায়িত্ব পালনের পরই সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। দলটির মালিক প্রীতি জিনতার সঙ্গে তাঁকে ২০১৯ সালের আইপিএলে আর দেখা যাবে না।

গতকাল শনিবার শেবাগ টুইট করে বলেন, ‘সব ভালো কিছুরই একটা শেষ আছে। দুই মৌসুম খেলোয়াড় এবং তিন মৌসুম দলের পরামর্শক হিসেবে অসাধারণ সময় কাটিয়েছি আমি। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সঙ্গে চলার সময় শেষ হয়ে এসেছে। আমি দলের কাছে কৃতজ্ঞ এবং ভবিষ্যতের জন্য দলের প্রতি আমার শুভকামনা থাকল।’ তবে বীরেন্দর শেবাগের এমন সিদ্ধান্তের পেছনে প্রীতি জিনতার সঙ্গে মনোমালিন্যের বিষয়টি জড়িত আছে বলে গুঞ্জন শোনা গেছে। ভারতীয় গণমাধ্যমে এসেছিল, রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে হারের ফলে দুজনের মনোমালিন্য শুরু হয়। তবে প্রীতি জানিয়েছেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, ‘ভীরু ও আমার আলোচনার একটি অংশ ছড়িয়ে পড়ে এবং সবার কাছে আমি খলনায়ক হয়েছি।’

২০১৮ সালের আইপিএলে কিছু ভালো খেলোয়াড় কেনা এবং এবং রবিচন্দন অশ্বিনের নেতৃত্বে খুব ভালো শুরু করা পাঞ্জাবের ফলাফল বলতে ছিল না কিছুই। ছয়টি জয় এবং আটটি হারের ফলে তাঁদের স্থান গিয়ে দাঁড়ায় সেই আসরের র‍্যাঙ্কিংয়ের শেষ দল দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের উপরে। শুরুর ছয় ম্যাচের পাঁচটিতেই জয় পেয়েছিল পাঞ্জাব। ধারণা করা হচ্ছিল, প্লে অফের খরা কাটানোর সুযোগ এবার লুফে নেবে তারা। তবে পরের সাত ম্যাচে টানা হারে দলের অবস্থান নেমে যায় অনেক।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সঙ্গে কোচিং ক্যারিয়ারের যাত্রাকে সুন্দর একটি সফরের সঙ্গে তুলনা করেছেন শেবাগ। তবে গত আইপিএলের আসরে সবকিছু সুন্দরভাবে শেষ হয়নি বলেই গণমাধ্যম তো বটেই, একই তথ্য জানিয়েছে পরিসংখ্যানও।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement