Beta

বিশ্বকাপে লিটনের রাজসিক অভিষেক

১৮ জুন ২০১৯, ০১:০৫ | আপডেট: ১৮ জুন ২০১৯, ০১:০৯

স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপের আগে ভারতের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে করেছিলেন ৭৩ রান। ৯০ বলে খেলা ইনিংসটি ছিল দুর্দান্ত। তারপরেও বিশ্বকাপে প্রথম তিনটি ম্যাচে মূল একাদশে জায়গা হয়নি লিটন দাসের। তামিমের সঙ্গে সৌম্য ওপেন করবে এটাই পছন্দ মাশরাফি-রোডসের। তাই বলে লিটন কোনোভাবেই সুযোগ পাবেন না?

মোহাম্মদ মিঠুনের ব্যর্থতায় সুযোগটা পেলেন লিটন। বিশ্বকাপে অভিষেক হল তাঁর। এমন একটা ম্যাচে লিটনের অভিষেক হল যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয়টা বাংলাদেশের খুবই দরকার। লিটন ম্যাচটা খেললেন, ৯৪ রান করলেন, আর  দলকে জিতিয়ে বের হলেন। বিশ্বকাপের মঞ্চে এমনই আগমনী বার্তা!

আর সেই অভিষেকটাই রাজকীয় করে রাখলেন তিনি। সাকিবের সঙ্গে জুটি গড়ে দল জিতিয়ে শেষ পর্যন্ত মাঠ ছেড়েছেন তিনি। ৬৯ বলে করেছেন ৯৪ রান। তিনি কতটা বিধ্বংসী ছিলেন তা এতটুকু তথ্যে বোঝা যাবে না। লিটন চার মেরেছেন আটটি, ছয় মেরেছেন চারটি। চারটি ছয়ের তিনটি এসেছে পরপর। গ্যাব্রিয়েলের করা ৩৮ তম ওভারের প্রথম তিন বল তিনি উড়িয়ে ফেলেছেন সীমানার বাইরে।

সৌম্যকে নিয়ে তামিম শুরুটা ভালোই করেন। তবে সৌম্য আউট হয়ে যান ২৯ রানে। পরে আসা সাকিবকে নিয়ে জুটি গড়েন তামিম। কিন্তু সেট হওয়ার পরেই আউট হয়ে যান তিনিও। দলের অন্যতম ভরসা মুশফিক বিদায় নেন মাত্র এক রানে। মুহূর্তে স্কোরটা হয়ে গেল তিন উইকেটে ১৩৩ রান। পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামেন লিটন। সাকিব ততক্ষণে সেট হয়ে গেছেন। শুরুতে লিটন সিঙ্গেল নিয়ে সাকিবকেই স্ট্রাইকে পাঠান। থিতু হন নিজেও।

এক পর্যায়ে হাত খুলে মারতে থাকেন। সেটা এমনই টার্গেট আরো একটু বেশি থাকলে সেঞ্চুরিটাই হয়ে যেত লিটনের।

একাদশে জায়গার ব্যাপার অন্য, কিন্তু যে কয়জন তরুণ মাশরাফির সম্ভাবনাময় গুডবুকে ছিলেন তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে লিটন দাস। গত বছর এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলেন লিটন। ১১৭ বলে ১২১ রান করেন তিনি। ২৯টি ওয়ানডে খেলা লিটনের শতক ওই একটিই। তবে ওই ইনিংসেই তিনি নিজেকে চিনিয়ে দেন।

বিশ্বকাপে এমন রাজসিক অভিষেকে একাদশে তাঁর জায়গাটা যে পাকা-পোক্ত হল তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

Advertisement