Beta

শাস্ত্রীদের দিয়ে আর চলবে না, নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

১৬ জুলাই ২০১৯, ১৮:২৭

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বকাপ চলাকালীন ভারতীয় ক্রিকেট দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রীসহ সাপোর্ট স্টাফদের মেয়াদ ৪৫ দিন বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেমিফাইনালেই থেমে যায় বিরাটদের বিশ্বকাপ অভিযান। আর তাতেই অসন্তুষ্ট বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)।

বিসিসিআই মনে করছে শাস্ত্রীদের দিয়ে আর চলবে না। তাই আজ মঙ্গলবার বিসিসিআই কোচের জন্য আবেদন গ্রহণ করার কথা জানিয়েছে।

হেড কোচ, ব্যাটিং কোচ, বোলিং কোচ, ফিল্ডিং কোচ, মনোবিদ, স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ ও প্রশাসনিক ম্যানেজারসহ বিভিন্ন পদে আবেদন চাওয়া হয়েছে।

তবে বিসিসিআই জানিয়েছে, ‘বর্তমানে ভারতীয় জাতীয় দলের কোচিং স্টাফরাও নিয়োগ পদ্ধতিতে অংশ নিতে পারবেন।'

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, আবেদনপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩০ জুলাই, ২০১৯ বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট নিয়োজিত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ) জানায়, এসব পদে বিসিসিআই যে সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই চূড়ান্ত।

বর্তমান কোচিং স্টাফদের মধ্যে শাস্ত্রীসহ বোলিং কোচ ভারত অরুণ, ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার এবং ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরকেও ৪৫ দিনের জন্য বর্ধিত মেয়াদে রাখা হয়েছে। আগামী ৩ আগস্ট থেকে ক্যারিবিয়ানদের সঙ্গে সিরিজে তাঁরা ভারতীয় দলের সঙ্গে থাকবেন।

এই চারজন কোচিং স্টাফ নতুন করে আবেদনকারীদের তালিকাভুক্ত থাকবেন। তাঁদের নতুন করে আবেদন করতে হবে না, যেহেতু তাঁদের আবেদনপত্র আগে থেকেই বিসিসিআইয়ের কাছে রয়েছে। তবে, নির্বাচনের বাকি নিয়মের মধ্য দিয়ে যেতে হবে তাঁদের।

কিন্তু ভারতীয় দলে একজন নতুন ট্রেনার ও মনোবিদ প্রয়োজন হবে। কেননা ভারতের বিশ্বকাপ অভিযান সমাপ্ত হতেই ট্রেনার শঙ্কর বসু ও ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্ট দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন। তাঁদেল জায়গায় নতুন কাউকে নিয়োগ করা হবে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ভারত তিনটি করে টি-টোয়েন্টি ও একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে। টেস্ট হবে দুটি। সব মিলিয়ে প্রায় মাসখানেকের সফরে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে থাকতে হবে ভারতকে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পরে ভারত খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে। দেশের মাঠে প্রোটিয়াদের এই সিরিজ শুরু হবে ১৫ সেপ্টেম্বর।

Advertisement