Beta

কোহলির এক পোস্টেই ক্ষতি পুষিয়ে যাবে, পাকিস্তানকে উপহাস ভারতের!

০৮ আগস্ট ২০১৯, ২১:২৩

স্পোর্টস ডেস্ক

গত সোমবার জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিল করে দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্যসভায় প্রবল হট্টগোলের মধ্যে এই ঘোষণা দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এর প্রতিবাদে ভারতের সঙ্গে সব ধরনের ব্যবসা-বাণিজ্য বাতিল করে দেয় পাকিস্তান সরকার।

পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তে উপহাস করেন ভারতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। আজ বৃহস্পতিবার টুইটারে কটাক্ষ করে তিনি লিখেছেন, ‘পাকিস্তান বাণিজ্যিক চুক্তি বাতিল করায় ভারতীয় অর্থনীতির খুব বড় ক্ষতি হলো। এই ক্ষতির পরিমাণ বিরাট কোহলি প্রতিটা ইনস্টাগ্রাম পোস্ট করে ওই সংস্থার কাছ থেকে যত টাকা পান তার সমান। খুব দুঃখের ঘটনা। এত বড় ক্ষতি আমরা কী করে সামাল দেব!’

ভারত বলছে, নিজের জেদ বজায় রাখতে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য বন্ধ করেছে পাকিস্তান। এই সিদ্ধান্তে ভারতের চেয়ে পাকিস্তানেরই বেশি ক্ষতি হবে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে ১.৩৬ কোটি রুপি আয় করেন কোহলি।

অজিত দোভালের দাবি, পাকিস্তানের কাছ থেকে এই পরিমাণ টাকাই আয় করে ভারত। যা ভারতের বিপুল অর্থনীতির কাছে নগণ্য।

গতকাল বুধবার ভারতের বিরুদ্ধে পাঁচটি বড় পদক্ষেপ নিয়েছে পাকিস্তান। এরই মধ্যে ভারতে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বরখাস্ত করা হয়েছে পাকিস্তানে ভারতের রাষ্ট্রদূতকেও। আপাতত ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তিও স্থগিত করেছে।

রাষ্ট্রপতির নির্দেশ জারির মধ্য দিয়ে মোদির সরকার বাতিল করে দিল ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা, যা জম্মু-কাশ্মীরকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যকে দুই টুকরোও করে দেওয়া হলো। রাজ্য থেকে লাদাখকে বের করে তৈরি করা হলো নতুন এক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, যার কোনো বিধানসভা থাকবে না। জম্মু-কাশ্মীরের পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদাও কেড়ে নেওয়া হলো। এখন থেকে তার পরিচিতি হবে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে। তবে তার বিধানসভা থাকবে। দুই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পরিচালিত করবেন দুই লেফটেন্যান্ট গভর্নর।

Advertisement