Beta

ভেনেজুয়েলায় অচলাবস্থা নিরসনে আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব মাদুরোর

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:২৯

অনলাইন ডেস্ক
গতকাল শনিবার ভেনেজুয়েলার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও সমাজতান্ত্রিক নেতা হুগো শাভেজের ক্ষমতাগ্রহণের দুই দশক পূর্তি উপলক্ষে রাজধানী কারাকাসে আয়োজিত সমাবেশে ভাষণ দেন দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। ছবি : সংগৃহীত

ভেনেজুয়েলার চলমান রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনে আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো।

গতকাল শনিবার ভেনেজুয়েলার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও সমাজতান্ত্রিক নেতা হুগো শাভেজের ক্ষমতাগ্রহণের দুই দশক পূর্তি উপলক্ষে রাজধানী কারাকাসে আয়োজিত সমাবেশে এ প্রস্তাব দেন মাদুরো। সমাবেশে হাজারো সমর্থকের পাশাপাশি সামরিক পোশাকে বেশ কিছু লোককেও অংশ নিতে দেখা যায়।

নিয়ম অনুযায়ী ২০২০ সালে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও, চলমান অচলাবস্থা নিরসনে এ বছরই পার্লামেন্ট নির্বাচনের প্রস্তাব দেন মাদুরো।

সমাবেশে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো বলেন, নতুন ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি গঠনে আমি রাজি আছি। এ বছরেই পার্লামেন্ট নির্বাচন হবে। সে নির্বাচনেও আমাদের জয় হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন একটি গ্রহণযোগ্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আহ্বান জানানোর একদিন পর আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব দিলেন চাপে থাকা মাদুরো।

অন্যদিকে মাদুরোর বিরুদ্ধে বিদ্রোহের ডাক দিয়েছেন বিমান ও সামরিক বাহিনীর দুই কর্মকর্তা।

এদিকে মাদুরোর পদত্যাগের দাবিতে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে যোগ দেন দেশটির স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুয়াইদোর সমর্থকরাও।

সমর্থকদের উদ্দেশে ৩৫ বছর বয়সী গুয়াইদো বলেন, স্বাধীনতা অর্জন না হওয়া পর্যন্ত লড়াই অব্যাহত থাকবে। সংকট সমাধানে সেনাবাহিনীকে বসে না থেকে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান তিনি।

ভেনেজুয়েলার স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট গুয়াইদো বলেন, ‘মাদুরো নয়, সময় এসেছে সংবিধান ও দেশের প্রতি, মানবিক পরিস্থিতির প্রতি সমর্থন দেওয়া। সেনাবাহিনীর সদস্যদের এখনই এগিয়ে আসার আহ্বান জানাই।’

গুয়াইদোর সমর্থনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে ভেনেজুয়েলার বাইরেও। স্পেন ও চিলিতে মাদুরো বিরোধীদের সমর্থনে সমাবেশে যোগ দেয় হাজারো মানুষ।

অন্যদিকে, সামরিক বাহিনী থেকেও এবার মাদুরোর বিরুদ্ধে বিদ্রোহের ডাক শোনা যাচ্ছে। গতকাল বিমান বাহিনীর এক জেনারেল ও সেনাবাহিনীর একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেল ভিডিও বার্তার মাধ্যমে বিরোধীদের প্রতি সমর্থন জানান।

তবে বিদ্রোহী কর্মকর্তাদের দেশদ্রোহী আখ্যা দিয়েছে মাদুরো সরকার।

Advertisement