Beta

ভার্জিনিয়ায় গুলি চালিয়ে ১২ সহকর্মীকে হত্যা করলেন সরকারি কর্মী

০১ জুন ২০১৯, ০৭:৫৭ | আপডেট: ০১ জুন ২০১৯, ১২:০৯

অনলাইন ডেস্ক

চেনা-জানা সহকর্মী হয়ে উঠলেন মৃত্যুদূত। ‘এলোপাতাড়ি’ গুলি চালিয়ে ১২ সহকর্মীকে মেরে ফেললেন এক সরকারি কর্মী। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলীয় শহর ভার্জিনিয়ার ভার্জিনিয়া বিচ অফিসে স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেলের এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ছয়জন।

পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরেই ভার্জিনিয়া বিচ সিটি অঞ্চলে চাকরি করছেন।

তবে সন্দেহভাজন বন্দুকধারীর পরিচয় প্রকাশ করেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার সময় বন্দুকধারীও নিহত হন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ভার্জিনিয়ার সিটি পুলিশ কমিশনার জেমস সেভেরা সংবাদমাধ্যমে বলেন, স্থানীয় সময় বিকেল ৪টার কিছু পর ভার্জিনিয়া বিচ মিউনিসিপ্যাল সেন্টারে এক বন্দুকধারী ‘এলোপাতাড়ি’ গুলি ছুড়ে। এরপর খবর পেয়ে পুলিশ এলে বন্দুকধারী একপর্যায়ে পুলিশকে লক্ষ্য করেও গুলি করে। তখন পুলিশের পাল্টা গুলিতে তিনি মারা যান।’

যে ১২ জন মারা গেছেন তাদের পরিচয় এখনো প্রকাশ করা হয়নি। আহতদের মধ্যে পুলিশের একজন কর্তাব্যক্তিও রয়েছেন।

পুলিশ বলছে, এই এলাকায় অনেক সরকারি অফিস আছে। ঘটনার পর পরই পুলিশ সব অফিস থেকে কর্মকর্তাদের বের করে দিয়ে বন্ধ করে দেয়।

স্থানীয় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ওয়েভেকে ভবনটির সহকারী প্রশাসনিক কর্মকর্তা মেগান বানটন বলেন, ‘আমরা নিচ থেকে শুধু ভবনটির ভেতরে মানুষের চিৎকার আর চেঁচামেচি শুনেছি।’

এর আগে গত ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের অরোরায় একটি কারখানার কর্মী গুলি চালিয়ে পাঁচ সহকর্মীকে মেরে ফেলে। তবে, শুক্রবার কেন ওই মিউনিসিপ্যালিটি কর্মী গুলি চালাল তা এখনো স্পষ্ট নয়। এফবিআই বিষয়টি তদন্ত করছে।

Advertisement