Beta

মোদি সরকারের ‘কুঁড়েঘর প্রতিমন্ত্রী’র বিরুদ্ধে ৬৬ মামলা

০১ জুন ২০১৯, ২১:৫২

অনলাইন ডেস্ক
ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিমন্ত্রী প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গি। ছবি : সংগৃহীত

ভারতে নরেন্দ্র মোদি সরকারের মন্ত্রিসভার নতুন সদস্য প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গির সহজ-সরল জীবনযাপন নিয়ে ভূয়সী প্রশংসার মধ্যেই চলছে তাঁর বিতর্কিত অতীত নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা। অগ্নিসংযোগ, দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও সরকারি সম্পত্তি বিনষ্টসহ নানা অভিযোগে ৬৬টি মামলা রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এর আগে এসব মামলায় গ্রেপ্তারও হন তিনি।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সারঙ্গির নামের সঙ্গে জড়িয়ে আছে এক ‘বিতর্কিত’ অতীত। ১৯৯৯ সালের ২৩ জানুয়ারি, ওডিশার কেওনঝড়ের মনোহরপুর গ্রামে দুই সন্তান ফিলিপ (১০) ও টিমোথিসহ (৬) অস্ট্রেলীয় পাদ্রি গ্রাহাম স্টেইনসকে একটি গাড়িতে জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার জন্য স্থানীয় হিন্দু উগ্রপন্থীদের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলে খ্রিস্টান সম্প্রদায়।  সে সময় সারঙ্গি ছিলেন কট্টর ডানপন্থী বজরং দলের নেতা।

খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নেতারা বজরং দলকে এ হত্যাকাণ্ডের জন্য অভিযুক্ত করলেও আনুষ্ঠানিক তদন্তে কোনো নির্দিষ্ট দল বা গোষ্ঠীর সম্পৃক্ততা খুঁজে না পাওয়ার কথা জানায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

২০০২ সালে ওডিশা আইনসভা ভবনে ভারতীয় হিন্দু পরিষদের (ভিএইচপি) হামলার ঘটনার সময় সংগঠনটির সঙ্গে জড়িত ছিলেন সারঙ্গি। অগ্নিসংযোগ, দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও সরকারি সম্পত্তি বিনষ্টসহ নানা অভিযোগে ৬৬টি মামলা রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এসব মামলায় গ্রেপ্তারও হন তিনি। তবে কোনো অপরাধেই কখনো শাস্তির মুখে পড়তে হয়নি এই বিজেপি নেতাকে।

বিবিসির প্রতিবেদনে ওডিশার বিভিন্ন স্থানীয় গণমাধ্যমসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে কাজ করা সাংবাদিক সন্দীপ সাহুকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, বিভিন্ন সময়ে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সারঙ্গি ভারতে হিন্দুদেরকে খ্রিস্টধর্মে দীক্ষিত করানোর জন্য খ্রিস্টান মিশনারিদের ‘শয়তানি নকশার’ বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান।

ওডিশার পথে পথে সাইকেল নিয়ে নির্বাচনী প্রচার চালানো সারঙ্গি তাঁর এলাকায় বেশ জনপ্রিয়। নির্বাচনের ময়দানে হেভিওয়েট প্রতিদ্বন্দ্বী থাকার পরও সাদামাটা জীবনযাপন করা প্রতাপ চন্দ্রের ওপরই আস্থা রেখেছেন বালাসুরের জনগণ।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গির আসন বালাসুরে আনন্দ উল্লাসের বন্যা বয়ে যায়। সাদাসিধে জীবনযাপনের জন্য ভারতজুড়ে সামাজিক মাধ্যমেও প্রশংসায় ভাসেন তিনি। একটি ভাইরাল টুইটে লেখা হয়, ওডিশার মোদি হিসেবে পরিচিত প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গি এবার লোকসভা নির্বাচনেও সাইকেলে করে প্রচারণা চালান।’

‘ওডিশার মোদি’ হিসেবে আখ্যা দেওয়া হলেও প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘মোদির সঙ্গে কারো তুলনা সম্ভব নয়। নরেন্দ্র মোদির তুলনা শুধু মোদি নিজেই।’

প্রথমবার লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েই ৬৪ বছর বয়সী প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গি মোদি সরকারের দুটি মন্ত্রণালয়ের সমন্বিত প্রতিমন্ত্রীর দায়্ত্বি পেয়েছেন। এসএমই ব্যবসা মন্ত্রণালয় এবং পশুপালন, ডেইরি ও মৎস্য মন্ত্রণালয়ে কাজ করবেন তিনি।

ওডিশার ময়ূরভঞ্জ ও বালাসুরের শিক্ষার প্রসার, মাদকবিরোধী আন্দোলনে দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দেওয়ায় সারঙ্গি সেখানকার জনপ্রিয় মুখ। সারঙ্গি ২০০৪ সালে বিজেপি বিধায়ক হিসেবে এবং ২০০৯ সালে স্বতন্ত্র বিধায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

Advertisement