Beta

পাকিস্তানের মন্ত্রিসভায় ‘কিউট বিড়াল’, টুইটারে হাসি-তামাশা

১৬ জুন ২০১৯, ১২:১২ | আপডেট: ১৬ জুন ২০১৯, ১৪:৪২

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ার প্রাদেশিক সরকারের সংবাদ সম্মেলন দেখে পুরো টুইটার সমাজ হাসিতে ফেটে পড়েছে। নিয়ম মেনেই ফেসবুকে সংবাদ সম্মেলনের লাইভ প্রচার করছিলেন তাঁরা।

কিন্তু বিপত্তি বাধায় ক্যাট ফিল্টার। লাইভের সময় ক্যাট ফিল্টার অন থাকায় বিড়ালের কান ও গোঁফ এঁটে যায় রাজনীতিবিদ শওকত ইউসুফজায়ির মুখে।

এ জন্য আসলে তিনি দায়ী নন। কারণ, লাইভটা প্রচার করছিল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের সোশ্যাল মিডিয়া টিম। তাঁরাই লাইভ ভিডিও প্রচার করার সময় ক্যাট ফিল্টার বন্ধ করতে ভুলে যান। লাইভটি প্রচার হওয়ার সময় অনেকেই পেজে মেসেজ করে অ্যাডমিনকে ক্যাট ফিল্টার সরাতে বলেন।

সংবাদমাধ্যম সামা টিভির খবরে বলা হয়, পেজের পক্ষ থেকে ভিডিওটি ডিলিট করা হলেও বিষয়টি নিয়ে টুইটারে ব্যাপক হাসাহাসি চলছে। পাকিস্তানের খ্যাতনামা সাংবাদিক মনসুর আলি খান টুইটারে লিখেন, খাইবার পাখতুনখোয়ার সরকারের সোশ্যাল মিডিয়া টিমের কল্যাণে মন্ত্রিসভায় এখন বিড়ালও আছে।

টুইটারে আরেক ব্যবহারকারী লিখেন, ফিল্টার সরাও, মানুষগুলো বিড়াল হয়ে গেছে।

ফিল্টারসহ রাজনীতিবিদ শওকত ইউসুফজায়িকে দেখে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেন, সবচেয়ে কিউট পলিটিশিয়ান।

Advertisement