পাপুয়া নিউ গিনিতে অগ্ন্যুৎপাত, পাঁচ হাজার লোক স্থানান্তরিত

২৭ জুন ২০১৯, ২৩:০৫

অনলাইন ডেস্ক

পাপুয়া নিউ গিনির মাউন্ট উলাউন পর্বতের আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের ফলে ছাই, লাভা ও ধোঁয়ার উদগিরণ শুরু হওয়ায় বৃহস্পতিবার ওই এলাকার প্রায় পাঁচ হাজার লোক স্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন।

সংবাদমাধ্যম এবিসির খবরে বলা হয়, বিশ্বের ভয়াবহ আগ্নেয়গিরির একটি মাউন্ট উলাউন। এই আগ্নেয়গিরি থেকে বুধবার উদগীরণ শুরু হয়।

স্থানীয় কমিউনিটি নেতা ক্রিস লাগিসা জানান, লোকজন তাদের বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র সরে যেতে চার্চের হলে এসে জমায়েত হয়। তাঁদেরকে ট্রাকে করে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়।

প্রাদেশিক রাজধানী কিম্বে আগ্নেয়গিরির কাছাকাছি হওয়ায় এখানকার বাড়িঘর ও রাস্তায় ছাই ছড়িয়ে পড়ছে। আগ্নেয়গিরি থেকে উদগীরণ হওয়া ছাই বাতাসের ১৩ কিলোমিটার পর্যন্ত উর্ধ্বে উঠে তা চারপাশে ছড়াচ্ছে। ছাইয়ের কারণে নানা ধরনের শারীরিক উপসর্গ দেখা দেওয়ায় এ বিষয়ে লোকজনকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এদিকে প্রাদেশিক দুর্যোগ কমিটি বলছে, লাভা প্রবাহিত হওয়ার কারণে প্রধান উপকূলীয় সড়কের সাথে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

জাতীয় এয়ারলাইন্স এয়ার নিউগিনি অনির্দিষ্টকালের জন্যে কিম্বেও হসকিন্স এয়ারপোর্টে বিমান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়া ডারউইন ভলকানিক অ্যাশ এডভাইজরি সেন্টার আর্ন্তজাতিক এয়ারলাইন্সগুলোর জন্যে রেড এলার্ট জারি করেছে।

মাউন্ট উলাউন অত্যন্ত সক্রিয় আগ্নেয়গিরি হওয়া সত্ত্বেও এর আশপাশে হাজার হাজার লোক বাস করে।