Beta

মৃত মাকে জাগানোর আপ্রাণ চেষ্টা শাবকের, মর্মস্পর্শী ভিডিও

০৩ জুলাই ২০১৯, ১৪:৫২ | আপডেট: ০৩ জুলাই ২০১৯, ১৫:১৫

অনলাইন ডেস্ক

কাদায় পড়ে আছে মা গণ্ডারের নিথর দেহ, আর শিং ভাঙা মৃত মাকে জাগিয়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টা করছে গণ্ডার শাবক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে এমনই এক মর্মান্তিক ভিডিও।

পশু শিকারি ও চোরাচালানকারিদের বন্যপ্রাণী শিকারের এক নিষ্ঠুর সত্য সামনে এনে দিয়েছে এই ভিডিও।

গতকাল মঙ্গলবার ভারতীয় বন বিভাগের একজন কর্মকর্তা টুইটারে ভিডিওটি শেয়ার করেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকায় তোলা এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মাটিতে পড়ে আছে মৃত মা গণ্ডার। সাড়া না পেয়ে এক গণ্ডার শাবক বারবার মায়ের নিথর দেহ ঠেলে জাগানোর চেষ্টা করছে। মৃত মায়ের দুগ্ধপানেরও চেষ্টা করে শাবকটি।

ভিডিওটি শেয়ার করা পারভীন কাসওয়ানের মতে, শিকারিদের শিকার হওয়ার সময় মা গণ্ডারটি থেকে কোনো কারণে দূরে ছিল শাবকটি এবং সম্ভবত গণ্ডারের শিংয়ের জন্যই তাকে মেরেছে শিকারিরা।

ভিডিওটি শেয়ার করে পারভীন টুইট করেন, ‘অবৈধ শিকারের ছবি!! একটি গণ্ডার শাবক তার মৃত মাকে জাগানোর চেষ্টা করছে। শিংয়ের জন্য মা গণ্ডারকে মেরে ফেলেছে পশুশিকারিরা। মর্মান্তিক ও চোখে আঙুল দিয়ে দেখানোর মতো ঘটনা।’

পারভীন শেয়ার করার পর থেকে ভিডিওটি ব্যাপকভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দি ইনডিপেনডেন্ট জানায়, ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার একটি জাতীয় উদ্যানে এই গণ্ডারের দেহ পাওয়া গিয়েছিল। মারা যাওয়ার বেশ কয়েক ঘণ্টা আগেই এই মা গণ্ডারের শিংটি ভেঙে নেয় পশুশিকারিরা। এরপর গণ্ডার শাবকটিকে ঘুমপাড়ানোর গুলি দিয়ে শান্ত করে উদ্যান কর্তৃপক্ষ। তারপর ওই গণ্ডার শাবককে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই কর্মীরা ওই শাবকের নাম দেন শার্লট।

পরিবেশবান্ধব সংস্থা সেভ দ্য রাইনোর হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বের মোট গণ্ডারের প্রায় ৮০ শতাংশ আছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। আর কেবল ২০১৮ সালেই ৭৬৯টি অবৈধভাবে পশুশিকারের ঘটনা ঘটেছে।

Advertisement