Beta

হাতির ভয়ে ছেলেকে নিয়ে গাছে থাকছেন বাবা!

১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৩:১৫

অনলাইন ডেস্ক
হাতির ভয়ে ছেলেকে নিয়ে গাছে বাস করছেন এক ব্যক্তি। ছবি : সংগৃহীত

চলচ্চিত্র কিংবা নাটকে প্রায়ই বৃক্ষমানবের দেখা মেলে। শখের বশে গাছে ঘর বানিয়ে থাকার দৃশ্য দেখে দর্শক বিনোদিত হন। কিন্তু প্রাণ বাঁচাতে গাছের ওপর এক ব্যক্তির আশ্রয় মানবিক আবেদন সৃষ্টি করেছে।

ভারতের ওডিশা রাজ্যের কেঁওঝাড় জেলার কুসুমিতা জেলার এক ব্যক্তি নিজের জীবন রক্ষা করতে আশ্রয় নিয়েছেন গাছের ওপর। হিন্দুস্তান টাইমস প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বন্য হাতির ভয়ে সেই ব্যক্তি গাছের ওপর অস্থায়ী ঘর বানিয়ে বসবাস করছেন। ভারতের ওই অঞ্চলটিতে বন্য হাতির ব্যাপক উপদ্রব দেখা যায় বলেও জানিয়েছে প্রতিবেদনটি।

তিন দিন আগে বন্য হাতির আক্রমণে নিজের ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর সুরিয়া মহাকুর নামের ওই ব্যক্তি গাছে বসবাসের সিদ্ধান্ত নেন।

বার্তা সংস্থা এএনআইকে মহাকুর বলেছেন, ‘তিন দিন আগে বন্য হাতি আমার ঘর ধ্বংস করে দিয়েছে। হাতির আক্রমণ থেকে জীবন বাঁচাতে আমি ও আমার ছেলে এখানে অস্থায়ী আবাস গড়ে থাকছি। বন্য হাতি নিয়মিতই এদিকে আসে। একদল বন্য হাতি সত্যিই আমাদের ঘুম হারাম করে দিয়েছে।’

‘ক্ষতিপূরণ হিসেবে রাজ্য সরকারের কাছে একটি বাড়ি চেয়েছিলাম, কিন্তু কোনো সাড়া পাইনি,’ যোগ করেন মহাকুর।

তবে কেঁওঝাড় বন বিভাগ জানিয়েছে, হাতির গতিবিধি পর্যবেক্ষণের জন্য তাঁরা একটি দল গঠন করেছে।

‘আমরা তাঁদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। কাগজপত্র প্রস্তুত হয়ে গেছে। আমরা তাঁদের সঙ্গে কথা বলেছি, তাঁদের বুঝিয়ে বলেছি সবকিছু। তিনি এখন তাঁর গ্রামে ফিরে গেছেন। হাতির চলাফেরা নজরদারি করতে বন বিভাগের পক্ষ থেকে একটি দল গঠন করা হয়েছে,’ বলেন সদর রেঞ্জের কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার প্রধান।

ওডিশার জেলাগুলোর অনেক মানুষ বন্য হাতির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাতির দল জনসাধারণের ফসল ও বাড়িঘর ধ্বংস করে দিচ্ছে।

Advertisement