Beta

ছেলেমেয়ের বায়নায় অতিষ্ঠ, টাকার মূল্য বোঝালেন মা!

২০ আগস্ট ২০১৯, ২৩:৪৯

অনলাইন ডেস্ক

অনেক অভিভাবকই সন্তানদের নিত্যনতুন আবদারে অতিষ্ঠ। নতুন ফোন, দামি গ্যাজেট, খেলনা এবং আরো অনেক চাহিদা থাকে তাদের। খামখেয়ালি সন্তানকে টাকার মূল্য বোঝানো অনেক অভিভাবকের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। এ কারণেই হয়তো যুক্তরাষ্ট্রের একজন মা তাঁর সন্তানদের অর্থের মূল্য বোঝাতে অভিনব পদ্ধতি গ্রহণ করেছেন। তাঁর প্রয়োগকৃত পদ্ধতি বিশ্বব্যাপী মানুষের প্রশংসাও পাচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমস সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া রাজ্যের ডাবলিনের অধিবাসী শাকেথা মারিয়ন তাঁর ফেসবুকে এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট শেয়ার করেন। তিনি লেখেন, ‘আমার সন্তানরা নিয়মিত আমার কাছে নতুন মোবাইল ফোন, ডলার আবদার করে। বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার আবদারও থাকে তাদের।’

মারয়ান সন্তানদের চমকে দেওয়ার জন্য নতুন একটি পন্থা অবলম্বন করেন। তবে চমকটি মোটেই নতুন ফোন বা এ রকম কিছু নয়। তিনি তাঁর বাসায় একটি ‘নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি’ টাঙিয়ে দেন।

মারিয়নের দেওয়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে কিছু কাজের বিবরণ দেখা যায়। ‘রান্নাঘর ব্যবস্থাপক’, ‘প্রধান গৃহপরিচালক’, ‘লন্ড্রি সুপারভাইজারের’ মতো পদগুলোর সবই গৃহস্থালি সংক্রান্ত। সন্তানরা যাতে পূরণ করতে পারেন, সেজন্য একটি আবেদন ফরমও তিনি রাখেন। পাশাপাশি তিনি একটি ‘মা ক্রেডিট ইউনিয়ন’ও রাখেন।

এর মাধ্যমে মারিয়ন তাঁর সন্তানদের এটিই বোঝাতে চেয়েছেন, ‘তুমি যদি কোনোকিছু চাও, তবে সেটা পেতে কাজ করো; আয় করো।’

গত ১৩ আগস্ট শেয়ার করা পোস্টটি দুই লাখেরও বেশি প্রতিক্রিয়া পেয়েছে। এ ছাড়া পোস্টটি এক লাখ ২০ হাজারবার শেয়ার করা হয়েছে। এখনো চলমান রয়েছে। চলছে মন্তব্যও।

‘এটি আশ্চর্যজনক! আমিও এটি প্রয়োগ করতে চাই,’ লেখেন একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী। আরেকজন লেখেন, ‘ম্যাডাম, আপনি সুসন্তান গড়ে তোলার পথে আছেন। আশা করি, আপনার দেখানো পথ অন্য অভিভাবকরাও অনুসরণ করবেন।’ আরেক নেটিজেন লিখেছেন, ‘আমি এখানে বেশকিছু জীবনদক্ষতাকে অন্তর্ভুক্ত দেখতে পাচ্ছি। আমি এটা ভালোবাসি।’

কেমন লাগল এই ধারণাটি?

Advertisement