Beta

থমথমে আসাম, ১৪৪ ধারা জারি

৩১ আগস্ট ২০১৯, ১১:৫৩

কলকাতা সংবাদদাতা

আজ শনিবার ভারতের আসাম রাজ্যে প্রকাশিত হলো নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা। এতে স্থান পেয়েছে তিন কোটি ১১ লাখ নাগরিকের নাম। বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ ছয় হাজার নাগরিক। এরইমধ্যে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় আসামজুড়ে জারি করা হয়েছে হাই অ্যালার্ট। এ ছাড়া আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল।

এর আগে গত বছরের ৩০ জুলাই নাগরিকপঞ্জির যে খসড়া প্রকাশিত হয়েছিল, সেখানে আসামের নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ পড়েছিলেন ৪০ লাখেরও বেশি মানুষ। এখন সেটি কমে ১৯ লাখ ছয় হাজারে নেমেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা করছে প্রশাসন। যে কারণে মোতায়েন করা হয়েছে ৫১ কোম্পানি আধাসেনা।

আসামের ডিজিপি কুলধর শইকিয়া জানিয়েছেন, আসামের সাধারণ মানুষদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে কেন্দ্র ৫১ কোম্পানি সিএপিএফ পাঠিয়েছে। আগে থেকেই আসামে মোতায়েন রয়েছে ১৬৭ কোম্পানি সিএপিএফ। শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে দিসপুরের আসাম সচিবালয় ও বিধানসভা এলাকায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে গুয়াহাটিসহ উত্তেজনাপ্রবণ এলাকাগুলোতেও। পাশাপাশি ভাঙ্গাগড়, বশিষ্ঠ, হাতিগাঁও, সোনাপুরসহ আসামের বিভিন্ন এলাকায় জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা থেকে প্রকৃত ভারতীয়দের নাম বাদ যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছে আসু ও এআইইউডিএফ।

এদিকে সার্বিক পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছেন আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল। রাজ্যে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। সর্বানন্দ সোনোয়াল জানান, চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি থেকে যাদের নাম বাদ যাবে, তারা আদালত ও ট্রাইব্যুনালে আবেদন করার সুযোগ পাবেন।

জানা গেছে, আজ শনিবার থেকেই ইন্টারনেটে পাওয়া যাচ্ছে চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি। যাদের ইন্টারনেট সুবিধা নেই, তারা সরকারি এনআরসি সেবাকেন্দ্রে গিয়ে দেখতে পাবেন চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জির তালিকা।

আসামের প্রায় আড়াই হাজার এনআরসি সেবাকেন্দ্রের মধ্যে এক হাজার ২০০টিকে উত্তেজনাপ্রবণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরইমধ্যে চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি নিয়ে ভুয়া খবর বা সামাজিক মাধ্যমে ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টা করা হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আসামের ডিজিপি।

Advertisement