Beta

কাশ্মীর ও আসাম নিয়ে উদ্বিগ্ন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:০৩ | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:১৭

অনলাইন ডেস্ক

ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধান মিশেল ব্যাচেলেট। গত মাসে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে দেওয়ার পরে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে সে রাজ্যে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে রেখেছে তা নিয়ে  মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধান ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’ বলে জানান।

মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪২তম অধিবেশনের উদ্বোধনী ভাষণে গতকাল সোমবার মিশেল ব্যাচেলেট এসব মন্তব্য করেন। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

মিশেল ব্যাচেলেট বলেন, ‘আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বিধিনিষেধ আরোপ এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের আটকে রাখাসহ কাশ্মীরিদের মানবাধিকার নিয়ে ভারত সরকারের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের প্রভাব সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।’

ব্যাচেলেট আরো বলেন, ‘যদিও আমি ভারত ও পাকিস্তান দুদেশের সরকারকেই মানবাধিকারের প্রতি সম্মান প্রদর্শন ও একে সুরক্ষিত করার অনুরোধ করে যাচ্ছি, তবুও আমি বিশেষ করে ভারতের কাছে বর্তমান অবরুদ্ধ পরিস্থিতি বা কারফিউকে শিথিল করে মানুষের মৌলিক সেবাগুলো পাওয়ার অধিকার নিশ্চিত করার আহ্বান জানাচ্ছি। এবং যেসব নেতারা আটক রয়েছেন, তাঁদের মানবাধিকারের প্রতিও যাতে শ্রদ্ধা জানানো হয় সে অনুরোধ করছি। এসব বিষয়ে কাশ্মীরের জনগণের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

কাশ্মীরের পাশাপাশি আসামের জাতীয় নাগরিকপঞ্জি-এনআরসি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন মিশেল ব্যাচেলেট। তিনি জানান, আসামে এনআরসির মাধ্যমে অবৈধ অভিবাসীদের চিহ্নিত করা নিয়ে যে চরম অনিশ্চয়তা ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে, তা নিয়েও চিন্তিত তিনি।

এ ব্যাপারে মিশেল ব্যাচেলেট ভারত সরকারের কাছে তালিকা থেকে বাদপড়াদের আবেদন প্রক্রিয়া চলাকালীন যথাযথ কার্যাবলী নিশ্চিত করতে এবং নির্বাসন বা আটকে রাখা রোধ করতে ও মানুষকে রাষ্ট্রহীন হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করা নিশ্চিত করার জন্য আহ্বান জানান।

Advertisement