Beta

মালয়েশিয়ায় জেলহত্যা দিবস পালিত

০৪ নভেম্বর ২০১৭, ১২:৫৪

গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শুক্রবার জেলহত্যা দিবস পালিত হয়। ছবি : এনটিভি

গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জেলহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার এই উপলক্ষে কুয়ালালামপুরে সেন্তুল কারিকাপালা রেস্টুরেন্টে এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল করিমের সভাপতিত্বে এবং শাখাওয়াত হক জোসেফের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য (এমপি) ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধীরেন্দ্র দেবনাথ বলেন, বাঙালি জাতির ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্কিত অধ্যায় জেলহত্যা দিবস। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর স্বাধীনতাবিরোধীরা নির্মমভাবে হত্যা করে জাতীয় চার নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদ, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এ এইচ এম কামারুজ্জামানকে।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা বর্বরোচিতভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে। এর কিছুদিন পরই বঙ্গবন্ধুর আজীবন রাজনৈতিক সহচর, বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে যারা মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সেই জাতীয় চার নেতাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতর গুলি করে ও বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে ঘাতকরা।

ধীরেন্দ্র দেবনাথ আরো বলেন, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শত্রুরা এ দেশের স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেনি। পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে স্বাধীনতাবিরোধী দেশি-বিদেশি চক্র জাতির পিতাকে হত্যা করে। এরপর খুনি মোশতাকের নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী ওই চক্র এ দেশকে পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠে। বাংলাদেশ যাতে এগিয়ে যেতে না পারে, স্বাধীনতা যাতে ব্যর্থ হয়, স্বাধীন বাংলাদেশ যাতে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয় সেই চক্রান্ত করে স্বাধীনতাবিরোধী চক্র।  এ দেশে যেন কোনোদিন স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তি মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে সেই ষড়যন্ত্র থেকেই নিরাপদ স্থান জেলখানার অভ্যন্তরে এই হত্যাকাণ্ড চালায়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধান বক্তা মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও ইউনিভার্সিটি কুয়ালালামপুরের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক ডা. এ টি এম এমদাদুল হক, বিশেষ অতিথি মুক্তিযোদ্ধা শওকত হোসেন পান্না, মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান কামাল, দাতু আকতার হোসেন, দাতু কালাম, মোহাম্মদ আকতার হোসেন গাজী, মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোকলেছুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সিরাজ, শিক্ষা ও সাহিত্য সম্পাদক মুরাদ চৌধুরী, মালয়েশিয়া শ্রমিকলীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম বাবুল, সহসভাপতি শাহ আলম হাওলাদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি সাইদুর রহমান সরকার, সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম খান প্রমুখ।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement