Beta

রম্য

একটি মাইকের একান্ত সাক্ষাৎকার

২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:৫০

মো. আতিক উজ জামান

নির্বাচন, রাজনীতি কিংবা আন্দোলন—এ তিনটি শব্দের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে আরেকটি জিনিস। তা হলো মাইক। যুগ যুগ ধরে এর ব্যবহার করে আসছি আমরা। বলা হয়, প্রচারেই প্রসার। আজ সেই প্রচারবাহী এক মাইকের একান্ত সাক্ষাৎকার তুলে ধরা হলো হাস্যরসে।

হাস্যরস : হ্যালো মাইক, কেমন আছেন?

মাইক : প্লিজ, হ্যালো বলে আর ডাকবেন না। জন্ম থেকে হ্যালো হ্যালো শুনতে শুনতে আমি ক্লান্ত।

হাস্যরস : দুঃখিত। তবে কী বলে আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করা উচিত?

মাইক : আপনি হ্যালো না বলে 'Hi' বলতে পারেন। এখন অনেকেই আবার কথা শুরুর আগে মাইক্রোফোনে জোরে একটা টোকা দিয়ে দেখেন কাজ করছে কি না। হঠাৎ 'টাং...' করে শব্দে মাঝেমধ্যে চমকে উঠি। ভাগ্যিস আমার হার্টের সমস্যা নেই।

হাস্যরস : আচ্ছা, আপনি সবচেয়ে কাছের বন্ধু কাকে মনে করেন?

মাইক : অবশ্যই মাইক্রোফোনকে। বন্ধু বললে ভুল হবে, ও আমার জীবনসঙ্গী।

হাস্যরস :  তাহলে তো বেশ ভালো। তবে আপনারা একান্ত সময় কীভাবে কাটান?

মাইক : সে আর সময়। এই যে নির্বাচন চলে এসেছে, সারা দিনই যায় বাজতে বাজতে। অমুক মার্কা আর তমুক মার্কা। তবুও এটাই শান্তি যে, প্রেমিক যুগলের মতন আমরাও রিকশায় ঘুরি। সারা দিন একসঙ্গে ডিউটি করি। বেশ এনজয় করি।

হাস্যরস : নির্বাচন নিয়ে কিছু বলবার আছে কী?

মাইক : ভাই, সে আর কী বলব। এই আমার মাধ্যমেই যে কত মিথ্যা প্রতিশ্রুতি লোকের কানে গেছে। নিজেকে বড়ই অভিশপ্ত মনে হয় মাঝেমধ্যে। আবার সৎ নেতারাও আছেন। তবে সংখ্যায় অনেক কম।

মাইক : এত কিছু আবিষ্কার হয় যদি এমন ডিভাইস আবিষ্কার হতো যে নেতারা যখন মিথ্যা কথা বলবে, আমার গায়ে লাল বাতি জ্বলবে।

হাস্যরস : সুন্দর পরামর্শ। আচ্ছা প্রায় সময়ই মাইকে প্রচুর বিরক্তিকর তীক্ষ্ণ একটা শব্দ শোনা যায়। এটার কারণ কী?

মাইক :  একজন অপরিচিতজনকে আপনি যদি হঠাৎ পেঁচিয়ে ধরেন। সে কী করবে?

হাস্যরস : নিশ্চয়ই বহু জোরে চিৎকার করবে।

মাইক : ঠিক তাই। আপনি মাইক্রোফোনের জায়গা মতন না ধরে যদি তারসহ পেঁচিয়ে ধরেন, তবে ও চিৎকার তো করবেই।

হাস্যরস : আচ্ছা, আপনার জীবনের মজার কোনো ঘটনা হাস্যরসে শেয়ার করবেন?

মাইক : জনপ্রিয় এক বক্তার বক্তব্য শুরুর আগেই বিদ্যুৎ চলে গিয়েছিল। এরপর গরমে লোডশেডিংয়ে যখন শেষমেশ জেনারেটরের ব্যবস্থা করা হলো। বক্তা মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে প্রথম কথাতেই সকলের দৃষ্টি ফিরিয়ে আনলেন। কথাটি ছিল, ‘আজকাল মাইক্রোফোনটাও বাসার বউয়ের মতন, কথা শুনতে চায় না।’

হাস্যরস : সত্যিই দারুণ লাগল আপনার সঙ্গে কথা বলে। ভালো থাকবেন।

মাইক : আপনিও।

Advertisement