Beta

দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশিদের ঈদ আনন্দ পালিত

১২ জুলাই ২০১৮, ১৮:৪০

মনির পাটোয়ারী, দক্ষিণ কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের উদ্যোগে ঈদ আনন্দ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার ইনছন শহরের পুচ্ছনে  গত ১ জুলাই এই অনুষ্ঠান হয়।

অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে প্রবাসী কমিউনিটি সংগঠন বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন ও পুচ্ছন বিদেশি সাহায্য সংস্থা (ইয়ংজুমিয়ন সেন্টার)।

অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের সভাপতি রতন আহমেদ এবং উপস্থাপনা করেন কোরিয়ান নাগরিক কিম ইয়ং, জাহিদ সামিন ও শাওনেওয়াজ জুয়েল।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত  আবিদা ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া।

শুরুতে পবিত্র কোরআন শরিফ তেলাওয়াত করেন ইপিএস স্পোর্টস অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনের সাধারণ সম্পাদক খাজা মামুন। এরপর সবাই দাঁড়িয়ে জাতীয় সংগীত পরিবেশনা করেন।

অনুষ্ঠানে  শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন  বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের সভাপতি রতন আহমেদ ও পুচ্ছন বিদেশি সাহায্য সংস্থার সভাপতি কিম সোন ইন হোয়ান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ দূতাবাসের  রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম বলেন, ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে খুশি। ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও প্রবাসে ঈদ আনন্দ উপভোগ করা প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য সম্ভব হয়ে উঠে না ।

বাংলাদেশিদের দাবির  প্রেক্ষাপটে  আবিদা ইসলাম বলেন, কোরিয়ার বিভিন্ন অফিশিয়াল কাজে যেভাবে অন্যান্য ভাষার প্রচলন রয়েছে, যেন বাংলা ভাষার ব্যাপক প্রচলন হয়, সে প্রচেষ্টা তিনি  করে যাবেন। বিশেষত তিনি উল্লেখ করেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা বাংলা ভাষায় ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা দিতে পারে, সে বিষয়ে কোরিয়ান সরকারের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, দূর প্রবাসে পরিবার-পরিজন ছাড়া প্রবাসীদের জন্য ঈদ আনন্দ বেদনাবিধূর। ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনে পুচ্ছন বৈদেশিক সাহায্য সংস্থা ও বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের সবার প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথ কোরিয়ার সভাপতি ম্যাক্সিম চৌধুরী,সহসভাপতি, লেখক ওমর ফারুক হিমেল, পুচ্ছন মাইগ্রেন্ট সেন্টারের কিম বুং খেয়াং ও বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি কায় খসরু।

সংগঠনের সভাপতি রতন আহমেদ সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে কোরিয়া প্রবাসী সব বাংলাদেশিকে একে অপরের সহযোগী হয়ে কাজ করার এবং দূতাবাসকে সহায়তা করার অনুরোধ জানান।

রাষ্ট্রদূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, রাষ্ট্রদূত যেন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বাংলাকে কোরিয়ার সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেন।

বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের  পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম ও দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়াকে সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

একক গান পরিবেশন করেন প্রবাসী বাংলাদেশি বাউল শিল্পী আশুতোষ অধিকারী, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি কায় খসরু। পরে সমবেত কণ্ঠে গান করেন প্রবাসী বাংলাদেশি কোরিয়ান ছবির অভিনেতা ও শিল্পী আসাদুজ্জামান খান, দূতাবাসের প্রথম সচিব জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া ও  ম্যাক্সিম চৌধুরী।

সার্বিকভাবে অনুষ্ঠানটি প্রবাসীদের কাছে আনন্দময় করতে পরিশ্রম করেন বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের ফেরদৌস রুনী, আলী, মান্নান, রাহাত ও লুলু। 

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পুচ্ছন সিটি পুলিশ কর্মকর্তা ইয়ং ছন ফেজাং, গোপালগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশন ইন কোরিয়ায় সাধারণ সম্পাদক ডেভিড ইকরাম,

নোয়াখালী অ্যাসোসিয়েশন ইন কোরিয়ায় প্রধান উপদেষ্টা কামরুল ইসলাম সোহাগ, সভাপতি আরিফুর রহমান ইরান, সাধারণ সম্পাদক মনির পাটোয়ারী, সহসভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম সারোয়ার, রফিকুল ইসলাম ভুট্টো ও ইপিএস বাংলার নাজমুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement