Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

মেহমানকে গেট পর্যন্ত এগিয়ে দেওয়া কি সুন্নত?

১১ জুলাই ২০১৮, ১০:৫৩

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। শরীফ বায়জীদ মাহমুদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. আবু বকর মুহাম্মদ জাকারিয়া।

আপনার জিজ্ঞাসার ২১৩‌৩তম পর্বে মেহমানকে দরজা পর্যন্ত এগিয়ে দেওয়া সুন্নত কি না, সে সম্পর্কে ঢাকা থেকে চিঠিতে জানতে চেয়েছেন এক দর্শক। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : মেহমানকে গেট পর্যন্ত এগিয়ে দেওয়া কি সুন্নত?  

উত্তর : মেহমান বা কেউ এলে তাঁকে একটু এগিয়ে দেওয়া, এটা কিন্তু সুন্নতের মধ্যে পড়ে। কারণ রাসুলের (সা.) সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন তাঁর স্ত্রী সোফিয়া (রা.)। এ সময় নবী (সা.) ইতিকাফে ছিলেন। ইতিকাফ থেকে সাধারণত মানুষ বের হয় না। তারপরও তাঁকে এগিয়ে দেওয়ার জন্য নবী (সা.) একটু সামনে গেলেন।

সুতরাং, আমরা বুঝতে পারছি যে একটু এগিয়ে দেওয়া ভালো। আর এটি হচ্ছে আন্তরিকতার বিষয়।

আরেকটি বিষয় হচ্ছে, ইসলাম কিন্তু এই সৌজন্যবোধকে কখনো নিষেধ করে না। এলাকাভিত্তিক সৌজন্যবোধ যেগুলো আছে, এগুলোকে বলে আল অউফ। এ জন্য রাসুল (সা.) এই অউফগুলোকে অনুমোদন করেছেন এবং কোরআনে কারিমে আল্লাহতায়ালা ‘বিল মারুফে, ‘বিল অরফে’ নামে বিভিন্ন শব্দ ব্যবহারে করেছেন।

রাসুলের (সা.) নীতি অনুসারে বলা হয়, একটি উদ্দেশ্য বা প্রথা শরিয়তও হতে পারে, যতক্ষণ না শরিয়তবিরোধী হয়। এগুলো তো শরিয়তবিরোধী কোনো কাজ না, এগুলো হচ্ছে কার্টেসি বা সৌজন্য। একটি মানুষ আসলে আপনি তাঁর জন্য দাঁড়ালেন, তাঁকে স্বাগত জানালেন অথবা তাঁর সঙ্গে একটু এগিয়ে গিয়ে তাঁকে বিদায় দিলেন, এটি কিন্তু সৌন্দর্য এবং সৌজন্য দুটিই।

এটি আমাদের আমল করা উচিত এবং এই সৌজন্যবোধটুকু কিন্তু ইসলাম গ্রহণ করে নিয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement