Beta

এবার মোবাইল গেমে আলিয়া ভাট

২৩ মার্চ ২০১৭, ১৪:০১

বাণিজ্যিক ছবিতে যেমন সাফল্য পেয়েছেন, তেমনি বলিউডের ভিন্ন ধারার ‘উড়তা পাঞ্জাব’ বা ‘হাইওয়ে’র মতো ভিন্ন ধারার ছবিতে অভিনয় করেও প্রশংসিত হয়েছেন আলিয়া ভাট। তবে এবার আলিয়াকে ভক্তরা দেখবেন নতুন রূপে। না কোনো চলচ্চিত্রে জন্য নয়। মোবাইল গেমে আলিয়া আসছেন ডিজিটাল অবতার হয়ে। ভারতের ব্যাঙ্গালুরু ভিত্তিক মোবাইল গেম নির্মাতা মুনফ্রগ ল্যাব প্রথমবারের মতো এই তারকার জীবনীনির্ভর একটি মোবাইল গেম চালু করেছে। গেমটির নাম দেওয়া হয়েছে “আলিয়া ভাট : স্টার লাইফ।” খবর দ্য ইকনোমিক টাইমসের।

আলিয়া ভাটের সহযোগিতায় ভারতের বাজারের জন্য ছাড়া এই মোবাইল গেমটি বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে গুগল প্লে এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোরে। এই গেমের খেলোয়াড়দের বাস্তব জীবনের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন গল্পের মধ্য দিয়ে যেতে হবে। 

“আমরা বিশ্বাস রাখি যে আমাদের প্রতিষ্ঠান ভারতীয়দের জন্য সেরা মানের বিনোদনের ব্যবস্থা করতে সক্ষম এবং আমি আলিয়াকে সঙ্গে নিয়ে নির্মাণ করা গেমটি নিয়ে উচ্ছসিত।” বলছিলেন অ্যাপটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মুনফ্রগ ল্যাবের পরিচালক ও বোর্ড মেম্বার মার্ক স্কাগস।  

মার্ক আরো বলেন, ‘আলিয়া বলিউডের একজন শীর্ষ অভিনেত্রী, পাশাপাশি ভারতের অনেক তরুণ-তরুণীদের জন্য সে অনুপ্রেরণা। ডিজিটাল সংস্করণে তার নির্দেশিকাসমূহ এমনভাবে দেওয়া হয়েছে যাতে এর ব্যবহারকারীদের মনে হবে তারা রয়েছে সেলিব্রেটিদের দুনিয়ায়। আমি আমার দলের জন্য গর্বিত যে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে  বলিউড ভক্তদের জন্য সত্যিই একটি আকর্ষণীয় গেম তৈরি করেছে।’ 

আলিয়া ভাট বলেন, “এই গেম বাজারে আসায় উচ্ছ্বাস ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না, এর মাধ্যমে আমার ভক্তরা মজার মাধ্যমে চলচ্চিত্র দুনিয়ার অভিজ্ঞতা লাভ করবে। সবচেয়ে সেরা বিষয় এই যে, এই খেলাতে আমিও আছি, আমি আমার ভক্তদের চারদিক জুড়ে থাকব, এটা আমার জন্য অসাধারণ অভিজ্ঞতা। মুনফ্রগের দলটির সঙ্গে আমার প্রথম দেখা হয় যখন আমি গোয়াতে ‘ডিয়ার জিন্দেগি’ চলচ্চিত্রটির জন্য শুটিং করছিলাম। তখন তারা আমাকে নিয়ে একটি গেম তৈরির পরিকল্পনা করে এবং আমিও আগ্রহ বোধ করি।” 

গেমটিতে আলিয়া ব্যবহারকারীর ভালো বন্ধুর ভূমিকায় থাকবেন। আলিয়া ব্যবহারকারীদের চলচ্চিত্রশিল্পে কীভাবে নিজের অবস্থান তৈরি করে নিতে হবে সে সংক্রান্ত বেশ কিছু নির্দেশিকা দেবেন। এখানে একটি প্রাণবন্ত ভার্চুয়াল দুনিয়া থাকবে, থাকবে চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করার পাশাপাশি বিভিন্ন টিভি শো, বিজ্ঞাপন, ফ্যাশন শো, এবং সাক্ষাৎকার দেওয়ার সুযোগ। এ ছাড়া গেমটিতে রুচিসম্মত পোশাক, চলচ্চিত্র শিল্পের বড় আলোকচিত্রশিল্পী, পরিচালক এবং কস্টিউম ডিজাইনারদের সঙ্গে কাজ করতে হবে । 

গেমটিতে খেলোয়াড়দের একটি প্রতিভাসম্পন্ন ব্যবস্থাপক ভাড়া করতে হবে। তিনিই শিখিয়ে দেবেন কীভাবে নিজের দেহকে সঠিক গড়নে আনতে হবে, কীভাবে নৃত্য পরিচালকের কাছে নাচ শিখতে হবে। এ ছাড়া একজন নিজস্ব সহকারীও রাখতে হবে গেমটিতে, যে আপনার হয়ে গণমাধ্যমে সৃষ্ট বিভিন্ন গুজবের জবাব দেবে।

গেমটি তৈরি করেছেন স্কাগস মুনফ্রগ ল্যাবের একদল নির্মাতা যাঁরা এর আগেও ফার্মভিল, এম্পায়ার অ্যান্ড অ্যালিস, সিটিভ্যালি, দ্য ভ্যালি, ট্রেজার আইল্যান্ড এবং কমান্ড অ্যান্ড কনকুয়ার জেনারেলসের মতো নামকরা গেম তৈরি করেছিলেন। তাঁরা ইতিমধ্যেই তাঁদের গেমগুলোর মাধ্যমে প্রায় ৩৬৫ মিলিয়ন ব্যবহারকারীদের কাছে পৌঁছে গেছেন। 

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement