Beta

অ্যাপলের ইলেকট্রিক কার

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ১০:৫৮ | আপডেট: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ১০:৩৭

ফাহিম ইবনে সারওয়ার
অ্যাপলের ইলেকট্রিক কারে থাকতে পারে স্মার্টফোন এবং অটোমোবাইল প্রযুক্তির সমন্বয়। ছবি : ডিজাইন বুম

প্রযুক্তি জগতের নতুন অনেক কিছুর সাথে বিশ্ববাসীর পরিচয় করিয়ে দিয়েছে অ্যাপল। এবার তারা কাজ করছে ইলেকট্রিক কার নিয়ে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বেশ গোপনে ইলেকট্রিক গাড়ির প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে অ্যাপল। 

ইলেকট্রিক গাড়ির কিছু বৈশিষ্ট্যের কথাও জানিয়েছে ওয়াল স্ট্রিট। অ্যাপলের ইলেকট্রিক কার দেখতে হবে মিনিভ্যানের মতো। এই গোপন প্রজেক্ট শেষ হতে আরো কয়েক বছর সময় লাগতে পারে। 

গ্যাজেটের সাথে সাথে অটোমোবাইলের ক্ষেত্রেও অ্যাপল কাজ করতে চাইছে। আর এই খাতে নতুন প্রযুক্তি নিয়েই বাজারে নামতে চাইছে তারা। বিশেষ করে গুগলের চালকবিহীন গাড়ি, উবারের ট্যাক্সি অ্যাপ্লিকেশন এবং টেলসা মোটরসের ইলেকট্রিক কারের সাথে প্রতিযোগিতা করার মতো প্রযুক্তি নিয়েই বাজারে আসতে চাইছে অ্যাপল। 

ইন্টারনেট এবং কমিউনিকেশন সফটওয়্যারের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি থাকতে পারে অ্যাপল কারে। গত বছরের মার্চে আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য ‘কারপ্লে’ নামের একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছিল অ্যাপল, যার মাধ্যমে স্টিয়ারিং হুইল থেকে হাত না সরিয়েই গাড়িচালকরা ফোন করতে পারবেন বা আইফোনে জমা হওয়া ভয়েসমেইল শুনতে পারবেন। 

অটোমোবাইলে অ্যাপলের আটঘাঁট বেঁধে নামার আরো লক্ষণ রয়েছে। মার্সিডিজ বেঞ্জের গবেষণা ও উন্নয়ন দলের সাবেক প্রধান জোহান জাংরিথ বর্তমানে ম্যাক সিস্টেমস ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রধান হিসেবে কাজ শুরু করেছেন। গত বছর অটোমোবাইল সংক্রান্ত গবেষণার জন্য একটি গোপন গবেষণাগার খুলেছে অ্যাপল এবং অটোমোবাইল সংক্রান্ত গবেষণায় জাংরিথই নেতৃত্ব দিচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এ ব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।
 
ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল বলছে, অ্যাপলের এই প্রজেক্টের কোড নেম রাখা হয়েছে, ‘টাইটান’। ক্যালিফোর্নিয়ায় অ্যাপল হেডকোয়ার্টার থেকে কয়েক মাইল দূরে গবেষণাগারটি স্থাপন করা হয়েছে, যাতে বর্তমানে শতাধিক কর্মী কাজ করছেন।

Advertisement