Beta

রানওয়ে থেকে জলাশয়ে উড়োজাহাজ, সাঁতরে বাঁচলেন যাত্রীরা

২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:১৮

বিবিসি
মাইক্রোনেশিয়ার চুক আন্তর্জাতিক বিমাবন্দরের পার্শ্ববর্তী জলাশয়ে এয়ার নিউগিনির আধডোবা উড়োজাহাজ। ছবি : সংগৃহীত

পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দ্বীপদেশ মাইক্রোনেশিয়ার ওয়েনো দ্বীপের চুক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রীবাহী একটি উড়োজাহাজ রানওয়ে ফেলে পার্শ্ববর্তী জলাশয়ে গিয়ে পড়েছে। এরপর সেটি ডুবতে শুরু করলে প্রাণ বাঁচাতে শেষমেশ সাঁতার কাটতে বাধ্য হন যাত্রীরা।

আজ শুক্রবার সকালে পাপুয়া নিউগিনির রাষ্ট্রীয় এয়ারলায়েন্স ‘এয়ার নিউগিনি’র বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজটির জলাশয়ে পড়ে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানায়। তবে এতে কেউ গুরুতর আহত হননি বলে জানিয়েছে এয়ার নিউগিনি কর্তৃপক্ষ।

উড়োজাহাজটি পাপুয়া নিউগিনির রাজধানী পোর্ট মোর্সবি থেকে মাইক্রোনেশিয়ার দ্বীপ ফনপেই যাচ্ছিল বলে বিবিসি জানায়। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাওয়া বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওতে দেখা যায়, আধডোবা উড়জাহাজটির যাত্রী ও ক্রুদের উদ্ধারচেষ্টায় ছোট ছোট নৌকায় স্থানীয়রা চিৎকার করছেন।

ঘটনার পর এক বিবৃতিতে এয়ার নিউগিনি নিশ্চিত করছে, উড়োজাহাজে থাকা সব যাত্রী নিরাপদে বেরিয়ে আসতে পেরেছেন।

উড়োজাহাজটিতে ১২ কর্মী ও ৩৫ন যাত্রী ছিলেন। দুর্ঘটনার স্পষ্ট কারণ এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে খুব শিগগির তদন্ত শুরু হবে।

চুক বিমানবন্দরের ম্যানেজার জিমি এমিলিও বিবিসিকে বলেন, উড়োজাহাজটি রানওয়ে থেকে ১৬০ ইয়ার্ড দূরের জলাশয়ে আছড়ে পড়ে। তিনি বলেন, ‘ঠিক এ মুহূর্তে আমরা জানি না আসলে ব্যাপারটি কী ঘটেছে। আগামীকাল তদন্ত শুরু হবে। কিন্তু এখন আবারও বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।’

উড়জাহাজটিতে থাকা সব যাত্রীকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানান এমিলিও। কয়েকজন কিছুটা আহত হতে পারে বলে তাঁর ধারণা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement