Beta

থাই রাজকন্যাকে প্রধানমন্ত্রী পদে অযোগ্য ঘোষণা

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:২৬

অনলাইন ডেস্ক
সোমবার থাই রাজকন্যা উবলরাতানা রাজাকাকে বাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী পদের প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। ছবি : রয়টার্স

থাইল্যান্ডের রাজকন্যা উবলরাতানা রাজাকাকে প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থী হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। আজ সোমবার দেশটির নির্বাচন কমিশন রাজকন্যাকে বাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী পদের প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে।

থাই রাজকন্যা উবলরাতানা গত শুক্রবার আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে থাই রাকসা চার্ট পার্টি থেকে প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াইয়ের ঘোষণা দেন। এর পরপরই তাঁর ভাই ও থাই রাজা মহা ভাজিরালংকর্ন এক বিবৃতিতে বলেন, রাজপরিবারের উচ্চপর্যায়ের কোনো সদস্যের নির্বাচনে অংশগ্রহণ সংবিধান পরিপন্থী।

নির্বাচন কমিশনের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইসি আজ রাজকন্যা উবলতারানাকে বাদ দিয়ে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে। কারণ, রাজপরিবারের সব সদস্য রাজনীতির ঊর্ধ্বে।’

সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার দলের সমর্থকদের একটি অংশ রাকসা পার্টি গড়ে তোলেন। বর্তমান রাজার বড় বোন ৬৭ বছর বয়সী রাজকন্যা উবলরাতানা জনপ্রিয় এই দলটির হয়ে প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াইয়ে নামেন।

গত শুক্রবার থেকে থাইল্যান্ডের রাজনীতিতে উত্তাপ বিরাজ করছে। ব্যাংককের উত্তরবর্তী পিশিত প্রদেশে দাঙ্গা পুলিশকে সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহে প্রদেশটিতে রাজকন্যা উবলরাতানার সফর করার কথা ছিল।

গত এক যুগ ধরে দেশটিতে রাজনৈতিক সংঘাতময় পরিস্থিতি চলে আসছে। থাকসিন সিনাওয়াত্রার জনপ্রিয় রাজনৈতিক ধারা এবং রাজবংশ ও সামরিক বাহিনীর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের পাল্টাপাল্টি মিছিল মিটিংয়ে মাসের পর মাসও ব্যাংককের রাজপথ অবরুদ্ধ থাকতে দেখা গেছে।

২০০১ সালের পর থেকে সবগুলো নির্বাচনে টেলিযোগাযোগ ব্যবসায়ী থাকসিনের দল জয় পেয়েছে। তবে ২০০৬ থেকে এ পর্যন্ত সব সরকারকেই আদালতের আদেশে অথবা সেনা অভ্যুত্থানের মুখে পড়ে সরে দাঁড়াতে হয়েছে।

Advertisement